সর্বশেষ সংবাদ :

চর ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ করা হবে : প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, দুর্গম চরাঞ্চলে শিক্ষা ব্যাবস্থা এগিয়ে নিতে চর ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের চিন্তা করছে সরকার। প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগে দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমরা জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছি। প্রাথমিক শিক্ষায় ছাত্র-ছাত্রীদের উপবৃত্তির টাকা যাতে শিক্ষার্থীরা সঠিকভাবে পেতে পারে সেজন্য রুপালী ব্যাংকের শিওর ক্যাশের মাধ্যমে শিক্ষার্থীর মায়ের হাতে তুলে দিচ্ছি। ফলে নারীর ক্ষমতায়ন বাড়ছে অন্যদিকে উপবৃত্তির টাকা সঠিকভাবে শিক্ষার্থীর হাতে পৌছে যাচ্ছে।
তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক শিক্ষায় উপবৃত্তি চালু করায় দেশে বর্তমানে বিদ্যালয়ে উপস্থিতির হার এখন প্রায় ৮৯ শতাংশ। যা আগের তুলনায় অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ঝরে পড়া কমেছে অনেকাংশে। তিনি শনিবার কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদানের সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ কর্মশালায় এসব কথা বলেন।
জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রশিক্ষণ কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব গিয়াস উদ্দিন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা বিভাগের মহাপরিচালক মঞ্জুর কাদির, যুগ্ম-সচিব নেছার কাদের, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম মঞ্জু মন্ডলসহ কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, রংপুর ও গাইবান্ধা জেলার শিক্ষা কর্মকর্তা ও মনিটরিং কর্মকর্তারা।
প্রশিক্ষণ কর্মশালায় জানানো হয় বর্তমানে কুড়িগ্রাম জেলায় প্রাথমিকে ২ লাখ ৭৫ হাজার শিক্ষার্থীর মধ্যে ২ লাখ ৪৪ হাজার শিক্ষার্থী উপবৃত্তির আওতায় রয়েছে।


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৯ | সময়: ৩:০৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ