Daily Sunshine

আলোর ফেরিওয়ালা, ৫ মিনিটেই বিদ্যুৎ সংযোগ

ভোলাহাট ও নিয়ামতপুর প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ভোলাহাট সাব-জোনাল অফিসের উদ্যোগে ৫ মিনিটে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান কার্যক্রম ২২ জানুয়ারি মঙ্গলবার অর্ধদিবস পরিচালনা করা হয়। শেখ হাসিনার উদ্যোগ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ শ্লোগানে আলোর ফেরিওয়ালা প্রকল্পের আওতায় এ কার্যক্রম পরিচালিত হয়। এ দিন উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ৪ জন গ্রাহক আবেদন করলে ওয়্যারিং সম্পন্ন করে ছবি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদন ফি ও জামানতের অর্থ প্রদান করলে ৫ মিনিটেই মিলছে নতুন সংযোগ।
মঙ্গলবার ভ্যানে করে আলোর ফেরিওয়ালা ব্যানার ছুলিয়ে গোহালবাড়ী গ্রাম মেডিকেলমোড়, বাহাদুরগঞ্জ বাজার ও বংপুতা গ্রামসহ উপজেলার ২৩ জন গ্রাহক এ সুবিধা পেয়েছেন। দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলে।
বিদ্যুৎ সংযোগ নিতে কোন হয়রানি ছাড়াই আবাসিক সংযোগের জন্য ৫৬৫ টাকা ও আবাসিক সংযোগের জন্য ৯৬৫ টাকা প্রদান করে বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়েছে। বাহাদুরগঞ্জ বাজার গ্রামের আব্দুল মালেক আবেদনের ৫ মিনিটের মধ্যেই বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়ে ভীষণ খুশী।
তিনি বলেন, অফিসে আবাসিক সংযোগের জন্য ৯৬৫ টাকা দিয়ে সাথে সাথে বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়েছেন তিনি। এতে খুশী হয়েছেন তিনি।
গোহালবাড়ী গ্রামের তাজামুল হক জানান, এর পূর্বে এমন অদ্ভূত কার্যক্রম তার চোখে পড়েনি। সরকারের এমন উদ্যোগে তিনি খুশী। এমন উদ্যোগ যাতে সরকার অব্যহত রাখেন বলে দাবী করেন।
ভোলাহাট পল্লী বিদ্যুৎ সাব- জোনাল অফিসের সহকারি জুনিয়ার ইঞ্জিনিয়ার মেহেরুন ইসলাম খান বলেন, গ্রাহক কোন প্রকার হয়রানি ছাড়াই আবেদন করে ৫ মিনিটের মধ্যেই বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে। এ ধরণের প্রকল্প অব্যহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ওয়্যারিং ইন্সপেক্টর আশরাফুল হক, মিটার টেষ্টার জিয়াউর রহমান, লাইন টেকনিশিয়ন ইসমাইল হোসেন, লাইনম্যান গ্রেড-২ মাহবুবুর রহমান, আব্দুল হান্নান, মাসুদ রানাসহ অন্যান্য কর্মচারীগণ।
এদিকে নওগাঁর নিয়ামতপুরে উপজেলা সদর হতে প্রায় ২৮ কিলোমিটার দুলে অনুন্নত জনপদ পাড়ইল ইউনিয়নের অবহেলিত গ্রাম ফুলাহারা। যুগের পর যুগ ওই পরিবারগুলো ছিল বিদ্যুৎহীন অন্ধকারে ঢাকা। ঘরে আলো জ্বালাতে কেরোসিনের হারিকেন অথবা কুপিই ছিল তাদের একমাত্র ভরসা। ঝড় তুফানের সময় সে বাতিও যেত নিভে। থাকতে হতো মৃত্যু আতঙ্কে। ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ার সেই বাতিই ছিল ভরসা। কৃষি নির্ভর এ এলাকার মানুষের একমাত্র জীবিকা জমিতে ফসল ফলানো। তা থেকে যা আয় হয় তা দিয়েই চলে তাদের সংসার।
এরই মধ্যে শেখ হাসিনার সরকারের উদ্যোগ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ এ কর্মসূচীর আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি হয়েছে ‘আলোর ফেরিওয়ালা’। সমিতির বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ফেরিওয়ালা হয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরে তাৎক্ষনিকভাবে মাত্র সাড়ে চারশ টাকা দিয়ে যাচ্ছে বিদ্যুৎ সংযোগ। সোমবার এক দিনেই উপজেলার পাড়ইল ইউনিয়নের ফুলাহারা গ্রামে ১৩টি বাড়ীতে দেওয়া হয়েছে বিদ্যুৎ সংযোগ। এসব বাড়ী হয়েছে বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত। যুগের পর যুগ কেরোসিনের আলোকিত থাকা তাৎক্ষনিক বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়ে সবাই খুশি।
ওয়ারিং সম্পন্ন করে বাড়ীতে বসে আবেদনসহ সকল কাগজপত্র ও প্রয়োজনীয় জামানতের অর্থ আলোর ফেরিওয়ালার নিকট জমার সাথে সাথে মাত্র ৫ মিনিটেই নতুন মিটার সংযোগ দেয়া হয়েছে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী জুনিয়ার প্রকৌশলী শামসুল হুদা আকন্দ, লাইন কেটনিশিয়ান মোয়াজ্জেম হোসেন, লাইন ম্যন হাসিফুল ইসলাম, সাংবাদিক নূরুন নবী।

জানুয়ারি ২৩
০৪:০৮ ২০১৯

আরও খবর