Daily Sunshine

মান্দায় ঝুঁকিপূর্ণ বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ পরিদর্শন করলেন ডিসি

মান্দা প্রতিনিধি : নওগাঁর মান্দায় আত্রাই নদীর ঝুঁকিপূর্ণ বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ পরিদর্শন করেছেন নওগাঁ জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে নিয়ে ভালাইন ইউনিয়নের আয়াপুর খেয়াঘাট থেকে বানডুবি ভোলাবাজার পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার এলাকার ৫টি অধিক ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্ট পরিদর্শন করেন তিনি।
এসময় মান্দা উপজেলা নির্বাহী অফিসার খন্দকার মুশফিকুর রহমান, নওগাঁ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সুধাংশু কুমার সরকার, উপজেলা প্রকৌশলী শহিদুল হক, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা গোলাম ফারুক হোসেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম, ভালাইন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইব্রাহীম আলী বাবু, স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মিসহ এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধ পরিদর্শন করে বলেন, আগামি বর্ষা মওসুমের আগেই বাঁধের ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্টগুলো মেরামত করা হবে। বাঁধে মাটি কেটে সংস্কারসহ অধিক ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্টে মেট্রোসিংসহ যাবতীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পানিউন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন তিনি।
এসময় ইউপি চেয়ারম্যান ইব্রাহীম আলী বাবুসহ স্থানীয়রা বর্ষা মওসুমে আত্রাই নদীর ভয়াবহতার চিত্র তুলে ধরে জেলা প্রশাসকের নিকট বিভিন্ন দাবি দাওয়া উত্থাপন করেন। তারা বলেন, এ বাঁধের আয়াপুর খেয়াঘাট থেকে বানডুবি ভোলাবাজার পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার রাস্তায় ১২ বছর ধরে কোনো সংস্কার কাজ করা হয়নি। বাঁধের দুইধারের মাটি কেটে গিয়ে চরম ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। আগামি বর্ষা মওসুমের আগে বাঁধটি সংস্কার করা না হলে এর যেকোন স্থানে ভেঙে গিয়ে ভয়াবহ বন্যায় প্লাবিত হতে পারে এ অঞ্চলের মানুষ। একই সঙ্গে শিবনদ ও আত্রাই নদীর সংযোগস্থলে একটি সুইসগেট নির্মাণের দাবি জানান স্থানীয়রা। সুইসগেটটি নির্মিত হলে একদিকে বর্ষা মওসুমে পানি নিষ্কাশন সহজ হবে অন্যদিকে আটকানো পানিতে খরা মওসুমে ফসল উৎপাদনের পথ সুগম হবে বলে উল্লেখ করেন তারা।
এরপর জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান পরে ভালাইন ইউনিয়ন পরিষদ পরিদর্শন ও তিনজন ভিক্ষুকের মাঝে ছাহল বিতরণ করেন। এসময় তিনি ভালাইন ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র, বৈদ্যপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও বৈদ্যপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন তিনি।

জানুয়ারি ২৩
০৩:৪২ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

ডিগ্রী থাকলেও মিলছেনা যোগ্য চাকরি

ডিগ্রী থাকলেও মিলছেনা যোগ্য চাকরি

শাহ্জাদা মিলন: বাংলাদেশের অন্যতম বিভাগীয় শহর রাজশাহী। সিল্কসিটি, আমের রাজধানী হিসেবে পরিচিত সারা দেশে রাজশাহী। তবে এসব পরিচয় ছাপিয়ে রাজশাহী ‘শিক্ষা নগরী’ হিসেবে সবচেয়ে বেশি পরিচিত। অসংখ্য নামিদামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে এখানে। এর সুফলে রাজশাহীতে বছর বছর বাড়তে ডিগ্রিধারী মানুষের সংখ্যা। তবে সেই অনুপাতে বাড়ছে না কর্মসংস্থান। রাজশাহীতে রয়েছে রাজশাহী

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সানশাইন ডেস্ক : করোনা মহামারিতে সাধারণ ছুটিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার সঙ্গে স্থগিত ছিল সরকারি-বেসরকারি চাকরির নিয়োগ প্রক্রিয়া। এ কয়েক মাসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পায়নি দেশের শিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠী। অংশ নিতে পারেনি কোনো নিয়োগ পরীক্ষাতেও। অনেকেরই বয়স পেরিয়ে গেছে ৩০ বছর। স্বাভাবিকভাবেই সরকারি চাকরির আবেদনে সুযোগ শেষ হয়ে যায় তাদের। তবে এ দুর্যোগকালীন

বিস্তারিত