Daily Sunshine

বাঘার সেই নওশাদ গ্রেফতার হয়নি

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা: রাজশাহীর বাঘায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে বাঁধা দেওয়ায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ইমরুল কায়েসসহ দুই কর্মচারির ওপর হামলাকারীদের হোতা, বালুদস্যু নওশাদ আলীকে দুইদিনেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ঘটনার পর থেকে নওসাদ সম্পর্কে বেরিয়ে এসেছে নানা তথ্য। সীমান্তের শীর্ষ মাদক কোরাকারবারীও নওসাদ।
স্থানীয় একাধিক সুত্র জানায়, নওশাদ আলী বাঘার প্রভাবশালী নেতা ও সাবেক পৌর মেয়র আক্কাছ আলীর ভগ্নিপতি। বিয়ের কয়েক বছর পর দুর্নীতির দায়ে তার চাকরি চলে যায়। এরপর এলাকায় ফিরে সীমান্তবর্তী এলাকার বাসিন্দা হওয়ার সুবাদে চোরাচালান ব্যবসায় নিজেকে সম্পৃক্ত করেন।
অভিযোগ রয়েছে, নওশাদ আলী চোরাচালান ব্যবসা পরিচালনা করতে গিয়ে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড বিজিবির (বিডিয়ার)এক সুবেদারকে হরিরামপুর পদ্মাপাড়ে মারপিট করে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। তবে এক সময় চোরাচালান ব্যবসা থেকে সরে দাড়িয়ে ঢাকায় গিয়ে আদম ব্যাবসা শুরু করেন। এরপর মাত্র কয়েক বছরেই কোটিপতি বনে যান। এর কিছুদিন পর সেখানেও ঘটে নানা বিপত্তি।
বাঘা থানা সুত্র জানায়, ২০১৭ সালে ফরিদপুরের গোপালগঞ্জ থানায় নওশাদ আলীর নামে প্রায় অর্ধকোটি টাকা প্রতারনার অভিযোগে একটি মামলা হয়। যার নম্বর ৪১৭/১৬ । এ মামলায় তিনি কয়েকদিন হাজত খাটেন। এরপর তার আত্নীয় স্বজনরা তদবির করে সেখান থেকে নওশাদ আলীকে জামিনে মুক্ত করেন।
এদিকে বাঘার আলাইপুর গ্রামের হান্নান মিঞা, মকিবর রহমান, আনার মোল্লা ও আয়নাল হক অভিযোগ করে বলেন, তারা (বিদেশ) মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য একই গ্রামের চারজন নওশাদ আলীকে নগদ ৮ লাখ টাকা দিয়েছিলেন। কিন্তু সেখানে (মালয়েশিয়া) পৌছার পর ভিসা অবৈধ হওয়ার অভিযোগে তাদের দেশে ফিরে আসতে হয়। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা সৃষ্টি হলে স্থানীয় ইউপি সদস্য আমিরুল ইসলামের মাধ্যমে মাত্র তিন লাখ টাকায় বিষয়টি আপোশ-মিমাংসা করা হয়।
সর্বশেষ গত ১৯ জানুয়ারী তার বাড়ির সামনের পদ্মায় অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের কাগজ-পত্র দেখতে চাওয়ায় বাঘা উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) ইমরুল কায়েসসহ অপর দুই কর্মচারীকে মারপিট করে আলোচনায় উঠে আসে নওশাদ আলী। কয়েকদিন আগেও পল্লী বিদ্যুতের খুটি পোতার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’জন শ্রমিককে মারপিট করে নওশাদ। এলাকাবাসী জানায়, নওশাদ দাঙ্গাবাজ প্রকৃতির মানুষ। তার দাপটে এলাকাবাসী অস্থির।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহাসীন আলী জানান, নওশাদেকে পুলিশ খুঁজছে। সে সরকারি কাজে বাধা প্রদানসহ একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের গায়ে হাত তুলেছে। তাকে যে কোন উপায়ে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

জানুয়ারি ২২
০৪:১১ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

সাহস সংগ্রাম নেতৃত্বে অবিচল

সাহস সংগ্রাম নেতৃত্বে অবিচল

সানশাইন ডেস্ক : মহামারি কোভিড-১৯ এর ধাক্কায় দুমড়ে-মুচড়ে যাচ্ছে বিশ্বব্যবস্থা। বৈশ্বিক এ মহামারির নিদারুণ প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশেও। অথচ এমন ঘোর অমানিশার মাঝেও আশার প্রদীপ জ্বালিয়ে রেখেছেন তিনি। তিনি-ই সম্প্রতি রিজার্ভ ও রেমিট্যান্সে রেকর্ড গড়ার খবর দিয়েছেন। বিশ্লেষকরা মনে করেন, মহামারিকালে জরুরি ভিত্তিতে প্রায় এক লাখ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

অস্ত্র মামলায় সাহেদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

অস্ত্র মামলায় সাহেদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

সানশাইন ডেস্ক : রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মোহাম্মদ সাহেদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে করা একটি মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার আগে সাহেদকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা

বিস্তারিত