Daily Sunshine

নাটোরে একই পরিবারের তিনজন নিহত

রাজশাহীতে বাস চাপায় অটোযাত্রীর মৃত্যু
স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা ও নাটোর : সড়ক দুর্ঘটনায় রাজশাহীর বাঘার একই পরিবারের স্বামী-স্ত্রী ও এক মাত্র সন্তান নিহত হয়েছেন। রোববার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বাগাতিপাড়া উপজেলার বাঁশবাড়িয়া এলাকায় এ সড়ক দূর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন, বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌর বাজার এলাকার খায়রুল হকের ছেলে আবদুর রব খালেদ (৩৫), তার স্ত্রী ছনিয়া বেগম (২৮), ছেলে তাসফি হাসান (৯)। তারা একই মোটসাইকেল যোগে বাগাতিপাড়া উপজেলার কৈয়চারপাড়া গ্রামের ভগ্নিপতি রফিকুল ইসলামের বাড়িতে ভাগ্নির বিয়ের দাওয়াত খেয়ে নিজ বাড়ি আড়ানীতে ফিরছিল।
এ সময় বাঁশবাড়িয়া ডিগ্রী কলেজের কাছে অবদা নামক স্থানে বালুবাহী মাহিন্দ্রের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সংষর্ষে ঘটনাস্থলে তারা ৩ জন নিহত হয়। নিহত আবদুর রব খালেদ আড়ানী পৌর বাজারের বিশিষ্ট জুতা স্যান্ডেল ব্যবসায়ী। তার স্ত্রী ছনিয়া বেগম গৃহীনি, ছেলে তাসফি হাসান আড়ানী প্যারাগণ কিন্ডার গার্টেনের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র। তাদের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছাড়া নেমে এসেছে।
এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাঁশবাড়িয়া এলাকার স্থানীয় স্কুল শিক্ষক সেলিম রেজা। তবে খবর লেখা পর্যন্ত লাশ ও বালুবাহী মাহিন্দ্র ঘটনাস্থলে পড়ে রয়েছে।
এদিকে, রাজশাহী মহানগরীতে বেপরোয়া গতির বাস চাপায় অটোরিকশা যাত্রী আব্দুর রাজ্জাক (৪২) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বাসটি জব্দ ও হেলপারকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত ব্যক্তি রাজশাহীর গোদাগাড়ী থানার বদরুদ্দিনের ছেলে। আটক হেলপারের নাম আসাদ।
নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনসুর আলী আরিফ জানান, সকালে নগরীর কোর্ট স্টেশন এলাকায় রাস্তা দিয়ে যাওয়া একটি অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয় একটি বাস। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলে অটোর যাত্রী আব্দুর রাজ্জাক নিহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে বাসটি জব্দ করে ও হেলপারকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি আরো জানান।

জানুয়ারি ২১
০৩:৩০ ২০১৯

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]