Daily Sunshine

রাবিতে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতাকে মারধরের অভিযোগ

রাবি প্রতিনিধি: বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক ও কোটা সংস্কার আন্দোলনের এক নেতাকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে কে বা কারা মারধর করেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। শুক্রবার বিকেল ৫ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে কয়েকজন যুবক তাকে মারধর করে বলে জানা গেছে।
মারধরের শিকার শিক্ষার্থীর নাম মাজহারুল ইসলাম। তিনি আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। মাজহারুল রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে মারধরকারীর কাউকেই চিনতে পারেননি বলে জানিয়েছেন মাজহারুল।
মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে মাজহারুল বলেন, “ টিউশনের লিফলেট বিতরণ করার জন্য আমরা কয়েকজন শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে বসে আলোচনা করছিলাম। এসময় কয়েকজন যুবক এসে আমাকে ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে। আমরা এখানে বসে কী করছি সেটা তারা জানতে চায়। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তারা আমাকে কিল-ঘুষি ও লাথি মারতে থাকে। পরে তারা আমাদের ওখানে রেখে চলে যায়। সেখান থেকে আমার বন্ধুরা আমাকে রিকশায় করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।’
বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের রাবি শাখার আহ্বায়ক মাসুদ মোন্নাফ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও এর আশেপাশের এলাকায় টিউশনের লিফলেট বিতরণ করার জন্য মাজহারুলসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী শহীদ মিনারে বসে আলোচনা করছিল। এসময় ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী সেখানে গিয়ে মাজহারুলকে মারধর করেছে। তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।’
এ বিষয়ে বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, টিউশন সেবার নামে কিছু শিক্ষার্থী ছাত্রদলের মিটিং করছে এমন তথ্যর ভিত্তিতে শহীদ মিনারে যায়। সেখানে গিয়ে মাজহারুলের গতিবিধি সন্দেহ হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করি। পরে ছেড়ে দেয়।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ‘মাজহারুল নামের ওই ছেলেকে মারধর করা হয়েছে কিনা আমি জানি না। তবে বিকেলে কয়েকজন শিক্ষার্থী আমাকে খবর দেয় যে- শহীদ মিনারে টিউশন লিফলেট বিতরণের আলোচনার নামে ছাত্রদল ও শিবিরের ছেলেপেলে মিটিং করছে। খবর পেয়ে আমি ওখানে যাই। গিয়ে আমি কোনো মারধরের ঘটনার কথা শুনিনি, দেখিওনি।’

জানুয়ারি ১৯
০৩:৩৩ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আসাদুজ্জামান নূর : ছোটবেলা থেকেই আঁকাআঁকির প্রতি নেশা ছিল জুবাইদা খাতুন তন্বীর। ক্লাসের ফাঁকে, মন খারাপ থাকলে বা বোরিং লাগলে ছবি আঁকতেন তিনি। কারও ঘরের ওয়ালমেট, পরনের বাহারি পোশাক ইত্যাদি দেখেই এঁকে ফেলতেন হুবহু। এই আঁকাআঁকির প্রতিভাকে কাজে লাগিয়েই হয়েছেন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা। তুলির খোঁচায় পরিধেয় পোশাকে বাহারি নকশা, ছবি, ফুল

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

সানশাইন ডেস্ক : সর্বশেষ ১৯৯১ সালে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানো হয়। এরপর অবসরের বয়স বাড়ানো হলেও প্রবেশের বয়স আর বাড়েনি। বেকারত্ব বেড়ে যাওয়া, সেশনজট, নিয়োগের ক্ষেত্রে দীর্ঘসূত্রতা, অন্যান্য দেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রার্থীরা। তবে এ বিষয়ে উদ্যোগ নেয়নি

বিস্তারিত