Daily Sunshine

v

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা : রাজশাহীর বাঘায় এক মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গাছ কেটে কাট ভাগা-ভাগি করেছেন স্কুল পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক । এ ঘটনা জানা-জানি হলে ফুসে উঠেন ওই এলাকার জনগণ। ঘটনার এক পর্যায় নির্বাহী কর্মকর্তার চাপের মুখে কাট ফেরত দিয়েছেন সভাপতি। বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।
সুত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি বাঘা উপজেলার চন্ডিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম ও প্রতিষ্ঠান পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ফজলুর রহমান স্কুলে ফার্নিচার (টেবিল-চেয়ার) বানানোর নামে বিদ্যালয়ের জমিতে লাগানো প্রায় পোনে তিন লক্ষ টাকা মুল্যের তিনটি মেহগনির গাছ কর্তন করেন। এরপর সেই গাছের (ভাল সার যুক্ত কাট)নিজেদের বাড়িতে নিয়ে আসেন এবং অবশিষ্ট কাট স্কুলের একটি রুমে রেখে দেন।
এদিকে এ ঘটনার কয়েকদিন পর স্কুলের অন্যান্য শিক্ষকদের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পারেন স্থানীয় লোকজন। এরপর তাঁরা প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠে এবং স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীসহ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দেন।
চন্ডিপুর গ্রামের বাসিন্দা টিনি, সাধু ও বিপ্লব সহ অনেকই অভিযোগ করে বলেন, যে তিনটি গাছ কাটা হয়েছে তার বাজার মুল্য প্রায় পোনে তিন লক্ষ টাকা। এ দিক থেকে স্কুলের কক্ষে যে কাট রাখা হয়েছে তার বাজার মুল্য সর্বচ্চ লক্ষাধিক টাকা। বাঁকি টাকার কাট কোথায় রাখা হয়েছে তা তদন্ত করে বের করতে হবে। তারা এই ঘটনার সাথে জড়িতদের অবিলম্বে শাস্তিরও দাবি জানান।
সরেজমিন সোমবার দুপুরে অভিযোগ পাওয়ার এক পর্যায় ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে এ বিষয়ে খোঁজ খবর নিলে ঘটনার সত্যতা মিলে। খোঁদ প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম নিজে বিষয়টি অকপটে স্বীকার করে কাট ফেরত দেয়ার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন। তবে স্কুলের ফার্নিচার বানানোর বিষয়ে যে রেজুলেশন হয়েছে সেটি তিনি মুখে স্বীকার করলেও দেখাতে রাজি হননি।
অন্যদিকে স্কুল পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ফজলুর রহমান সকালে কয়েকজন গণমাধ্যম কর্মীর কাছে কাট নেয়ার কথা অস্বীকার করলেও নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্থানীয় লোকজনের তোপের মুখে দুপুরে তার বাড়ি থেকে ভ্যান যোগে স্কুলের অফিস কক্ষে কাট ফেরত দিয়েছেন বলে এই প্রতিবেদকের কাছে স্বীকারুক্তি দেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, এ বিষয়ে স্থানীয় লোকজন আমাকে অভিযোগ কললে আমি সভাপতি ফজলুর রহমান-সহ প্রধান শিক্ষককে স্কুলের কাট স্কুলে ফেরত এনে সঠিক কাজে ব্যবহার করতে বলেছি।

জানুয়ারি ১৫
০৩:৩৯ ২০১৯

আরও খবর