Daily Sunshine

অচল রাকসু সচল করতে চায় প্রশাসন

নূর আলম, রাবি: ২৯ বছর ধরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (রাকসু) অচল। সম্প্রতি ডাকসু নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করায় রাকসু সচলের জোর দাবি উঠেছে। ছাত্রসংগঠনসহ সাধারণ শিক্ষার্থীরা খুব শীঘ্রই রাকসু নির্বাচন চাইছেন। ফলে ছাত্র সংগঠনগুলোর সঙ্গে আলোচনায় বসার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহান জানান, ‘রাকসু নির্বাচনের বিষয়ে খুব শীঘ্রই ছাত্রসংগঠনগুলোর সঙ্গে সংলাপে বসা হবে। তারা যদি নির্বাচন চায় তাহলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’
উপাচার্য আরও বলেন, ‘নির্বাচন দিতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। ছাত্রদের প্রতিনিধিত্ব নির্বাচিত প্রতিনিধিরাই করুক। আমরাও চাই রাকসু নির্বাচন হোক। তার জন্য ছাত্রসংগঠন আর তাদের নেতাদেরকে এগিয়ে আসতে হবে। আমরা নির্বাচন দিলাম আর ছাত্রসংগঠনগুলো নিজেদের কারণে নির্বাচনে না আসলে তখন আরও সমস্যা তৈরি হবে।’
এ বিষয়ে রাকসুর সাবেক ভিপি রাগীব আহসান মুন্না বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের যোগ্য নেতৃত্ব তৈরি করার জন্য রাকসু ব্যাপক ভূমিকা পালন করে। একজন সাবেক প্রতিনিধি হিসাবে আশা করি প্রশাসন এবার যেন নির্বাচন দেয়।’
রাবি ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন, ‘রাকসু নির্বাচন এটা দীর্ঘ দিনের দাবি। আমাদের কোনো সমস্যা নেই। আমরাও চাই নির্বাচন হোক তবে, সেটা অবশ্যই স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি শিবিরকে বাদ দিয়ে। দ্রুতই নির্বাচনের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে আমরা আলোচনায় বসব।’
রাবি ছাত্রদলের সভাপতি ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, ‘ছাত্রদের অধিকার আদায়ে রাকসুর বিকল্প নেই। তাই প্রশানের উচিত দ্রুত রাকসু নির্বাচন দেওয়া। তবে রাকসু নির্বাচনের প্রস্তুতির আগে ছাত্র সংগঠনগুলোর সহাবস্থান জরুরি বলে মনে করি।’
ছাত্র ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি তাসবিরুল ইসলাম কিঞ্জল বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের যোগ্য নেতৃত্ব আর গণতন্ত্র চর্চার জন্য রাকসু নির্বাচন খুবই দরকার। কিন্তু দুঃখের বিষয় প্রায় ২৯ বছর রাকসু নির্বাচন হয় না। ডাকসু হচ্ছে আমরা আশাবাদী রাবি প্রশাসনও রাকসু নির্বাচন দেবে।’
বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি ফিদেল মুনির বলেন, ‘আমরা বিভিন্ন সময় প্রশাসনের কাছে রাকসু নির্বাচনের দাবি জানিয়েছি। তারা আশ্বাসেই সীমাবদ্ধ থেকেছেন। আমরা এখন এটার বাস্তব রূপ দেখতে চাই।’
ছাত্র ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক সুমন মোড়ল বলেন, নির্বাচনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রস্তুত থাকলে আমরাও অংশ নিতে প্রস্তুত আছি। তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে সব সংগঠনের সহাবস্থান নিশ্চিত করার দায়িত্ব নিতে হবে; তাছাড়া নির্বাচন সম্ভব না। এ বিষয়ে প্রশাসনের তেমন উদ্যোগ দেখছি না।
জানা গেছে, রাকসু প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত পর্যন্ত ১৪ বার নির্বাচন হয়েছে। অথচ বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাদেশ-১৯৭৩ অনুযায়ী প্রতিবছর রাকসু নির্বাচন হওয়ার কথা। সর্বশেষ ১৯৮৯-৯০ সালে রাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সে সময় ভিপি নির্বাচিত হন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী ও জিএস নির্বাচিত হন রুহুল কুদ্দুস বাবু। এরপর ২৯ বছর ধরে নির্বাচন হয়নি।

জানুয়ারি ১৪
০২:৫৭ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

রাজশাহীতে হেরোইনসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

রাজশাহীতে হেরোইনসহ  দুই মাদক ব্যবসায়ী  গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী মহানগরীতে ৭০ গ্রাম হেরোইনসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, ঢাকা জেলার কেরানিগঞ্জ থানার ধালেশ্বর পশ্চিমপাড়া এলাকার মানিক মিয়ার ছেলে মিজান মিয়া (২৫) ও একই এলাকার রেজোয়ানের ছেলে রবিউল ইসলাম রিফাত (২৫)। রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার সদর গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান,

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সানশাইন ডেস্ক : করোনা মহামারিতে সাধারণ ছুটিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার সঙ্গে স্থগিত ছিল সরকারি-বেসরকারি চাকরির নিয়োগ প্রক্রিয়া। এ কয়েক মাসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পায়নি দেশের শিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠী। অংশ নিতে পারেনি কোনো নিয়োগ পরীক্ষাতেও। অনেকেরই বয়স পেরিয়ে গেছে ৩০ বছর। স্বাভাবিকভাবেই সরকারি চাকরির আবেদনে সুযোগ শেষ হয়ে যায় তাদের। তবে এ দুর্যোগকালীন

বিস্তারিত