Daily Sunshine

রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডে আন্দোলনকারীদের মারপিট

স্টাফ রিপোর্টার : চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে আন্দোলনকারী রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের দৈনিক হাজিরাভিত্তিক অস্থায়ী কর্মচারী কল্যাণ সমিতির এক সদস্যকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আহত ইবরাহীম হোসেন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছেন। রোববার লক্ষীপুরস্থ বোর্ডের অফিসার্স কল্যাণ সমিতির কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ করেন সমিতির সভাপতি মুকুল শেখ।
মুকুল শেখ অভিযোগ করে বলেন, আমাদের চাকরি স্থায়ীকরনের বিষয়ে কথা বলার জন্য আমরা অফিসার্স কল্যাণ সমিতির কার্যালয়ে যাই। সেখানে আলোচনার এক পর্যায়ে বোর্ডের কয়েকজন কর্মকর্তার নির্দেশে তাদের লোকেরা আমাদের ওপর হামলা করে। এসময় তারা আমাদের সহকর্মী ইবরাহীমের মাথা ফাটিয়ে দেয়। আমরা তাকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করেছি।
এ বিষয়ে এখনো থানায় কোনরকম অভিযোগ করা হয়নি বলে জানান মুকুল শেখ। তিনি বলেন, ইবরাহীম ৭ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছে। আমরা কাগজপত্র হাতে পেলেই এ বিষয়ে থানায় মামলা দায়ের করব।
অন্যদিকে, রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে রাজশাহী শিক্ষাবোর্ড কার্যালয়ে ৩০ থেকে ৪০ জন বহিরাগত জোরপূর্বক প্রবেশ করে। গেটে দায়িত্বরত প্রহরী আনসার সদস্য মোর্শেদ আলী, রায়হান ও আনসার প্লাটুন কমান্ডার (পিসি) ফজর আলীর বাধা উপেক্ষা করে দুর্বৃত্তরা ভেতরে প্রবেশ করে। এসময় তারা বিভিন্ন অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে ও মুকুল শেখের খোঁজ করে। এছাড়াও মুকুল শেখকে পেলে গুলি করার হুমকি দিয়ে তারা বোর্ড অফিস ত্যাগ করে।
দায়িত্বরত আনসার প্লাটুন কমান্ডার ফজর আলী বলেন, ৩০-৪০ জন বহিরাগত বোর্ড অফিসে প্রবেশ করে। আমরা বাঁধা দিলেও আমাদেরকে একরকম ধাক্কা দিয়েই তারা ভেতরে প্রবেশ করে। তারা মুকুল শেখের খোঁজ করে। মুকুলকে না পেয়ে তারা চলে যায়। এসময় তারা মুকুলকে পেলে গুলি করার হুমকি দিয়ে বোর্ড অফিস ত্যাগ করে।
এবিষয়ে মুকুল শেখ বলেন, আমি বিষয়টি শুনেছি। তারা আমাকে বোর্ড অফিসে খুঁজেছে। এছাড়াও আমাকে পেলে গুলি করার হুমকিও দিয়েছে। আমরা কারও সঙ্গে কোন বিবাদে জড়াতে যাইনি। আদালত আমাদের চাকরি স্থায়ী করার নির্দেশ দিলেও শিক্ষাবোর্ড কোনো উদ্যোগ নিচ্ছেন না। তাই আমরা কর্মসূচি দিতে বাধ্য হয়েছি। আমরা চেয়েছি আমাদের বৈধ অধিকার আদায়ের কথা বলতে। যার ফলে আমাদেরকে ওপর এরকম অত্যাচার করা হচ্ছে।
উল্লেখ্য, চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচীসহ জেলা প্রশাসক ও বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন রাজশাহী মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের অস্থায়ী কর্মচারীরা।

জানুয়ারি ১৪
০২:৫৪ ২০১৯

আরও খবর