Daily Sunshine

তানোর উপজেলা নির্বাচনে আ’লীগের তোড়জোড়

টিপু সুলতান, তানোর: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রেষ না কাটতেই শুরু হয়েছে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তোড়জোড়। ইতোমধ্যে মনোনয়ন প্রত্যাশিরা উপর মহলের নেতাদের দ্বারে দ্বারে ধন্না দিচ্ছে।
উপজেলার বিভিন্ন স্থানে আ’লীগের দুই প্রার্থীও নাম শোনা যাচ্ছে। এর মধ্যে তানোর উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ-আল-মামুন ও তানোর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও কলমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রমিদ ময়না। তবে উপজেলা বিএনপি কোন নেতাই উপজেলা নির্বাচনে যেতে আগ্রহ প্রকাশ করেন নি।
কারণ হিসাবে তানোর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান ও বিএনপির নেতা মফিজ উদ্দীন বলেন, নির্বাচন করে লাভ কী। দেশে তো গণতন্ত্র নেয়। জনগণের ভোটের রায় আ’লীগ মানতে নারাজ। ভোটের ফলাফল নিজেদের ইচ্ছেমত দেন। যার প্রমাণ জাতীয় নির্বাচন। তবে দলের সিদ্ধান্তে বাইরে আমরা নয়।
এদিকে আ’লীগের দুই হেবিওয়েট প্রার্থীদের নিয়ে চলচ্ছে লবিংগ্রুপিং। দলের মধ্যে চলচ্ছে কানা ঘোসা। মার্চ মাসের মধ্যে এই নির্বাচন হতে পারে- এমনটা মনে করে পিছিয়ে নেই তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগ। সেই সঙ্গে স্থানীয় এমপির কাছাকাছি ভিড় করছেন অনেকে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক নেতা-কর্মীরা বলেন, দুই বার উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী জয়লাভ করেন। গত দুইবার উপজেলা নির্বাচনে উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ-আল-মামুনকে দলীয় ভাবে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। দলের মনোনয়ন চেয়ে ও তাকে দলীয় মনোনয়ন পান নি। এবার তিনি যোগ্য ব্যক্তি।
অপরদিকে তানোর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও কলমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়নার সর্মথকরা বলেন, এমপি’র খুব কাছের লোক তিনি। পুরো উপজেলায় তিনি তার সংগঠনিক দিকে শক্ত করে রেখেছেন। জাতীয় নির্বাচনে তার ভুমিকা শক্ত অবস্থানে ছিল। ময়নাকে মনোনয়ন দিলে উপজেলা আ’লীগের অঙ্গসংগঠন আবারও চাঙ্গা উঠবে।
বর্তমানে তানোর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমরান আলী মোল্লা মারা যাবার কারণে চেয়ারম্যানহীন ভাবে চলচ্ছে উপজেলা পরিষদ। তবে ভারপ্রাপ্ত চেয়াম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বন্দনা রানী। তানোর উপজেলা ৭টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত।

জানুয়ারি ০৮
০৩:৩৮ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আলোকিত সিটি পেয়েছেন মহানগরবাসী

আলোকিত সিটি পেয়েছেন মহানগরবাসী

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী মহানগরীর শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান চত্বরে দাঁড়িয়ে আছে মাস্তুল আকৃতির মজবুত দুইটি পোল। প্রতিটি পোলের উপর রিং বসিয়ে তার চতুরদিকে বসানো হয়েছে উচ্চমানের এলইডি লাইট। আর সেই লাইটের আলোয় আলোকিত বিস্তৃত এলাকা। শুধু শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান চত্বর নয়, এভাবে মহানগরীর আরো গুরুত্বপূর্ণ ১৪টি চত্বর আলোকিত হয় প্রতি

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সানশাইন ডেস্ক : করোনা মহামারিতে সাধারণ ছুটিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার সঙ্গে স্থগিত ছিল সরকারি-বেসরকারি চাকরির নিয়োগ প্রক্রিয়া। এ কয়েক মাসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পায়নি দেশের শিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠী। অংশ নিতে পারেনি কোনো নিয়োগ পরীক্ষাতেও। অনেকেরই বয়স পেরিয়ে গেছে ৩০ বছর। স্বাভাবিকভাবেই সরকারি চাকরির আবেদনে সুযোগ শেষ হয়ে যায় তাদের। তবে এ দুর্যোগকালীন

বিস্তারিত