Daily Sunshine

বাঘায় জমি দখল পাল্টা দখল নিয়ে উত্তেজনা

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা: রাজশাহীর বাঘায় খাস জমি দখল নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টা-পাল্টি মহড়া শুরু হয়েছে। একপক্ষ দীর্ঘদিন জমি দখল রাখার পর সোমবার অপর পক্ষ প্রকাশ্য দিবালকে লাল নিশান টানিয়ে ওই জমি দখল করেছে। সোমবার সকালে উপজেলার আড়ানীতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় কোন পক্ষই প্রশাসনের নিকট অভিযোগ করেনি। তবে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাঘা উপজেলার আড়ানী রুস্তমপুর বাজারের নিচে বড়াল নদীর মধ্যে প্রায় ১০ বিঘা জমি দীর্ঘ ২০-২২ বছর দখল রেখে বিভিন্ন ফসল আবাদ করে আসছে রুস্তম এলাকার মোমিন উদ্দিন, সেলিম হোসেন ও নাসির উদ্দিন। এ জমি সোমবার সকালে একই এলাকার আজিবর রহমান, হৃদয় হোসেন, জনি হোসেন, মনির হোসেন, মেহের আলী, শফিকুল ইসলাম ও ফজল হোসেনসহ ২০-২৫ জনের একটি দল লাল নিশান টানিয়ে দখলে নিয়েছে।
এ বিষয়ে মোমিন উদ্দিন, সেলিম হোসেন ও নাসির উদ্দিন বলেন, নদীর মধ্যের খাস জমিতে আমরা চাষ-আবাদ করে আসছিলাম। আ’লীগের সমর্থকরা তা দখল করে নিয়েছে।
প্রক্ষান্তরে আজিবর রহমান বলেন, আমরা এই জমিটি লাল নিশান ঝুলিয়েছি যাতে করে ঘটনাটি প্রশাসনের নজর কাড়ে। আমাদের দাবি প্রকৃত ভুমিহীনদের মাঝে এই খাস জমি বন্দবস্ত দেয়া হউক।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহসীন আলী বলেন, এ বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
তবে আড়ানী পৌরসভার রুস্তমপুর ৯ নম্বর ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি জয়নাল হোসেন দাবি করেছেন, বড়াল নদীর মধ্যে কিছু খাস জমি অন্যরা দখল করে খাচ্ছিল। আমাদের মধ্যে কিছু দরিদ্র লোকজন আছে, তাদের মধ্যে ভাগ করে দেয়ার জন্য মূলত এ জমি দললে নেয়া হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, নদীর মধ্যে খাস জমি দখলের অধিকার কাওকে দেয়া হয়নি। পানি না থাকার কারণে অনেকেই ফসল ফলাই। তবে এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জানুয়ারি ০৮
০৩:৩৬ ২০১৯

আরও খবর