সর্বশেষ সংবাদ :

কোভিডের কারণে ‘ছোট পরিসরে’ হেলিকপ্টার নিয়ে বিয়ে

ঢাকা অফিস: করোনাভাইরাসের কারণে স্বল্প-পরিসরে বিয়ের আয়োজন করতেই হেলিকপ্টারে করে রাজশাহী থেকে দিনাজপুরের বিরামপুরে বিয়ে করতে এসেছেন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার ইমরান হোসেন। হেলিকপ্টারে বর আসছে এমন খবরে ভিড় জমান স্থানীয়রা। বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) হেলিকপ্টারে করে বিয়ে করতে বর আসছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়ায় সকাল থেকেই উৎসুক জনতার ভিড় জমে যায় বিরামপুর সরকারি কলেজে। একই সঙ্গে বরকে বরণ করে নিতে মিষ্টি ও ফুল হাতে নিয়ে কনে পক্ষের লোকজন হাজির হয় কলেজ মাঠে। দুপুর ১টায় কলেজ মাঠে চার যাত্রী নিয়ে হেলিকপ্টার থেকে নেমে আসেন বর। এ সময় কনে পক্ষের লোকজন মিষ্টি ও ফুল দিয়ে তাকে বরণ করে নেন। পরে সেখান থেকে প্রাইভেট কারে করে কনের বাড়িতে বিয়ের আসরে যান তিনি। ইংরেজি দৈনিক দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।  বর ইমরান হোসেন রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার ইসমাঈল হোসেনের ছেলে। কনে দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার শিমলতলী এলাকার মিজানুর রহমানের মেয়ে ইফফাত জাহান। পারিবারিকভাবেই তাদের বিয়ের আয়োজন করা হয়। মেয়ের বাবা মিজানুর রহমান বলেন, “সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশেও করোনাভাইরাসের প্রকোপ দিনদিন বাড়ছে। এর মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সরকার বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন। সে কারণেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অল্প পরিসরে মেয়ের বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে।” হেলিকপ্টার নিয়ে বিয়ে করতে আসা পাত্র প্রকৌশলী ইমরান হোসেন বলেন, “আসলে আমার এটা শখ ছিল যে হেলিকপ্টারে করে বিয়ে করব। তাছাড়া বর্তমানে দেশে করোনাভাইরাসের পরিস্থিতি মোটেও ভালো না। দিন দিন করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার বাড়ছেই। এর ফলে অনেকটা শখ এবং নিজের দায়িত্ববোধ থেকে হেলিকপ্টার নিয়ে বিরামপুরে বিয়ে করতে এসেছি।”


প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৮, ২০২২ | সময়: ১:১৫ পূর্বাহ্ণ | Daily Sunshine