Daily Sunshine

সংকট সমাধানে ইমরান খানকেই এগিয়ে আসতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

পাকিস্তানের নতুন সরকারকে নিয়ে আশাবাদী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ এইটিনকে দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে তিনি এ আশা প্রকাশ করেছেন। তিনি মনে করেন, নতুন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নেতৃত্বে সমৃদ্ধির পথে হাঁটবে ইসলামাবাদ।

বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার ‘স্পর্শকাতর’ বিষয়গুলোর সমাধানে ইমরানকে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি। সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘আমি ইমরান খানকে অভিনন্দন জানাই। একজন ক্রিকেট খেলোয়াড় হিসেবে আমি তাকে পছন্দ করি। তিনি খুব ভালো ক্রিকেট খেলতেন। সবসময় ছক্কা মারতেন। এখন আমি দেখার অপেক্ষায় আছি, তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে কী করেন।’

রোববার নিউজ এইটিনের সাংবাদিক শেখ হাসিনার কাছে ২০১৯ সালের সার্ক সম্মেলনের ব্যাপারে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আপনি নিশ্চয় জানেন, সার্কে আমরা দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে কোনো আলোচনা করতে পারি না। ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের কিছু সমস্যা আছে। আর আমাদের কথা বলতে গেলে বলব, আমরা এখন স্বাধীন দেশ। আমাদের নিজস্ব লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য আছে। কিন্তু আমার কাছে অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য আঞ্চলিক সহযোগিতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

এ সময় সার্ক কার্যকরে পাকিস্তানের আন্তরিক ও ইতিবাচক পদক্ষেপ প্রত্যাশা করেন তিনি।

বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের মধ্যকার ‘স্পর্শকাতর বিষয়ের প্রসঙ্গ টেনে শেখ হাসিনা বলেছেন, এখন এটা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর বিষয় যে তিনি কীভাবে সামনে অগ্রসর হবেন সমস্যাগুলোর সমাধানে।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সাল থেকে স্থগিত রয়েছে দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোর আঞ্চলিক সংগঠন সার্ক-এর শীর্ষ সম্মেলন।

ওই বছর নভেম্বরে পাকিস্তানে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে এসে তা বাতিল হয়ে যায়।

সার্কের সনদ অনুযায়ী, সার্কভুক্ত দেশের কোনো একটি দেশ এই শীর্ষ সম্মেলনে উপস্থিত হতে অস্বীকৃতি প্রকাশ করলে, তা এমনিতে স্থগিত হয়ে যায়। পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্কের টানাপোড়েনের জের ধরে পৃথক পৃথক সিদ্ধান্তের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ ও ভারত সম্মেলনে যোগ দিতে অস্বীকৃতি জানায়। এরপর ২০১৮ সালেও সম্মেলন হয়নি।

সানশাইন অনলাইন/এন এ

জানুয়ারি ২২
১০:৫২ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

ডিগ্রী থাকলেও মিলছেনা যোগ্য চাকরি

ডিগ্রী থাকলেও মিলছেনা যোগ্য চাকরি

শাহ্জাদা মিলন: বাংলাদেশের অন্যতম বিভাগীয় শহর রাজশাহী। সিল্কসিটি, আমের রাজধানী হিসেবে পরিচিত সারা দেশে রাজশাহী। তবে এসব পরিচয় ছাপিয়ে রাজশাহী ‘শিক্ষা নগরী’ হিসেবে সবচেয়ে বেশি পরিচিত। অসংখ্য নামিদামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে এখানে। এর সুফলে রাজশাহীতে বছর বছর বাড়তে ডিগ্রিধারী মানুষের সংখ্যা। তবে সেই অনুপাতে বাড়ছে না কর্মসংস্থান। রাজশাহীতে রয়েছে রাজশাহী

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সানশাইন ডেস্ক : করোনা মহামারিতে সাধারণ ছুটিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার সঙ্গে স্থগিত ছিল সরকারি-বেসরকারি চাকরির নিয়োগ প্রক্রিয়া। এ কয়েক মাসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পায়নি দেশের শিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠী। অংশ নিতে পারেনি কোনো নিয়োগ পরীক্ষাতেও। অনেকেরই বয়স পেরিয়ে গেছে ৩০ বছর। স্বাভাবিকভাবেই সরকারি চাকরির আবেদনে সুযোগ শেষ হয়ে যায় তাদের। তবে এ দুর্যোগকালীন

বিস্তারিত