সর্বশেষ সংবাদ :

কাজের মান নিয়ে কোন সমঝোতা নেই : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

নুরুজ্জামান,বাঘা : রাজশাহীর চারঘাট-বাঘা উপজেলা থেকে তিন তিনবার নির্বাচিত সাংসদ সদস্য ও মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ শাহরিয়ার আলম বলেন, সরকারি কাজের মান নিয়ে কোন সমঝোতা নেই।সোমবার(৯-মে)সকালে বাঘা উপজেলার নদী তীরবর্তী এলাকায় ভাঙ্গন প্রতিরোধে আলাইপুর নদী সংলগ্ন ঈদগাহের সামনে ব্লক নির্মান প্রকল্প পরিদর্শনে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে প্রতি বছর কম-বেশী বন্যা হয়। এই বন্যার সময় নদী তীরবর্তী এলাকায় ভাঙ্গন দেখা দেয়। এতে করে আতঙ্কে রাত কাটান নদী এলাকার মানুষ। আমি তাঁদের কথা ভেবে চারঘাট উপজেলার ইউসুফপুর থেকে বাঘার গোকুলপুর পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার ঝুকিপুর্ণ এলাকায় বাঁদ নির্মান প্রকল্প বাস্তবায়নের দাবি রেখে ছিলাম বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

সেই আলোকে গত বছর পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক সহ কয়েকজন বিভাগীয় প্রকৌশলী সরেজমিন নদী তীরবর্তী এলাকা পরিদর্শন করে ৭২০ কোটি টাকা ব্যায়ে ব্লক স্থাপন ও নদী ড্রেজিং এর জন্য প্রকল্প অনুমোদন করেন। বর্তমানে ১০ টি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এই কাজ বাস্তবায়ন করছে। আমি তাঁদের উদ্দেশ্যে একটি কথায় বলতে চাই, আপনারা কোন অনিয়ম করবেন না। মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে উন্নয়ন কাজের যে বাজেট, তার ৯৭ ভাগ দেশীয় অর্থে সম্পন্ন হয় | এই সফলতা মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর। আপনারা তাঁর জন্য দোয়া করবেন। তিনি জীবিত থাকলে, এ দেশের কোন উন্নয়ন কাজ থেমে থাকবে না।

সভায় রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ড(পাওবো)এর প্রধান প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম বলেন, উন্নয়ন সামগ্রীর দাম বৃদ্ধি এবং ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গুলোকে সময় মতো বিল পরিশোধ করতে না পারায় মাঝ খানে কাজের কিছুটা বিলম্ব হয়েছে।বর্তমানে আর কোন সমস্যা নেই। আমরা ভাঙ্গন প্রতিরোধে নদীর পাড় থেকে এক কিলোমিটার দুর দিয়ে ১২ কিলোমিটার নদী ড্রেজিং করার পরিকল্পনা গ্রহন করেছি। এর ফলে অসংখ্য জায়গা আবাদি জমিতে পরিনত হবে।

তিনি মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর মাধ্যমে বাঘার চাকরাজাপুর নদী এলাকায় সিডিএসপি প্রকল্প বাস্তবায়ন সহ চলমান প্রকল্প বাস্তবায়নে বর্তমান সরকারের নিকট আরো ৪৫০ কোটি টাকা বরাদ্দের দাবি জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ড(পাওবো)এর নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম শফিক , বাঘা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পাপিয়া সুলতানা , উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)সাজ্জাদ হোসেন, উপজেলা আ’লীগের সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মন্টু, সাবেক সাংগঠিনিক সম্পাদক ওয়াহেদ সাদিক কবির, পৌর আ’লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস সরকার,ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

 


প্রকাশিত: মে ৯, ২০২২ | সময়: ৩:৫৮ অপরাহ্ণ | আসাদুল্লাহ গালিব

আরও খবর