Daily Sunshine

দুর্গাপুরে ৬টি রামদাসহ কামার আটক

Share

দুর্গাপুর প্রতিনিধি
রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার মাড়িয়া এলাকায় কামার বাড়ি থেকে দেশীয় অস্ত্র রামদহসহ একজনকে আটক করেছে দুর্গাপুর থানা পুলিশ। আটককৃত ওই ব্যাক্তির নাম জনি (২৫)। তিনি পেশায় একজন কামার। তিনি মাড়িয়া গ্রামের মকসেদ কামারে ছেলে। মঙ্গলবার দুপুরে এঘটনাটিঘটে।

আটককৃত জনির জবানবন্দি থেকে জানা যায়, ওই গ্রামের বিএনপির নেতা আজাত খতিব, ইয়াছিন আলী ও আলাউদ্দিন আলী তাঁর কাছে রামদা তৈরী করতে দেয়। জনি তার অসুস্থ বাবার চিকিৎসার জন্য লোভে পড়ে সেই রামদাহগুলো তৈরী করছিলেন। আজাদ খতিব মাড়িয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৫টি রামদা ও ১১ টি রামদা তৈরীর লোহার পাতি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, আগামি ৫ জানুয়ারি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্রী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে আংশগ্রহণ করেছন উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাসান ফারুক ইমাম সুমন। ওই নির্বাচনে সহিংসতা করার পরিকল্পনায় তার নির্দেশে ৬ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি আজাদ খতিব ওই অস্ত্রগুলো তৈরি করতে দিয়েছিলেন।

এবিষয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী হাসান ফারুক ইমাম সুমনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, তাঁর বিপক্ষ প্রতিদ্বন্দ্বী  প্রার্থীর পরাজয় নিশ্চিত জেনে তারা তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।

এবিষয়ে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাশমত আলী বলেন, রামদাহসহ জনি নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। আটক জনিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সানশাইন/ শামি

ডিসেম্বর ২৮
২২:৩৪ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]