Daily Sunshine

আশ্রয়ন প্রকল্পকে প্রধানমন্ত্রী  ইবাদত হিসেবে নিয়েছেন : ড. আহমদ কায়কাউস

Share
অরবিন্দ দেব,শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি:প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস বলেছেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের নিরাশ্রয় দরিদ্র ভূমিহীনদের বিনা পয়সায় জমি ও বাড়ি দেয়ার আশ্রয়ন প্রকল্পকে ইবাদত হিসেবে নিয়েছেন’। তিনি বলেন, ‘ দরিদ্র ও ভূমিহীন মানুষদের জমিসহ বাড়ি তৈরী করে দেয়ার এমন কর্মসূচী শুধু বাংলাদেশে নয় সারা বিশ্বে বিরল’ সচিব ‘বিভাগীয়, জেলা উপজেলার সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই আশ্রায়ন প্রকল্পে অংশগ্রহন করার সুযোগ পেয়ে আমরা সবাই গর্বিত’। ড. আহমদ কায়কাউস আরো বলেন, ‘আমার চাকরি জীবনে অনেক ভালো কাজ করার সুযোগ পেয়েছি, কিন্তু আশ্রায়ণ প্রকল্পের চেয়ে ভাল কাজ জীবনে আর কখনও করিনি’। এ কাজে সম্পৃক্ত হতে পেরে আমার কর্ম জীবন সার্থক হয়েছে।
রোবাবর (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শ্রীমঙ্গল উপজেলার কালাপুর ইউনিয়নের মাইজদিহি এলাকার আশ্রায়ন প্রকল্প পরিদর্শন করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস এসব কথা বলেন।
এমসয় সিলেট বিভাগীয় কমিশনার মো. খলিলুর রহমান, মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান, জেলা পুলিশ সুপার মো. জাকারিয়া, মৌলভীবাজার জেলা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মল্লিকা দে, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সাধারণ) তানিয়া সুলতানা, এডিএম রোমানা ইসলাম, জেলা এডিশন্যাল এসপি সুদর্শন রায়, মৌলভীবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিনা ইসলাম, শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নজরুল ইসলাম, শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মিতালি দত্ত, সহকারী কমিশনার (ভূমি) নেছার উদ্দিন, সহকারী পুলিশ সুপার শহীদুল হক মুন্সী সার্কেল (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ) শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ শামীম অর রশীদ তালুকদার, কালাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান মুজুলসহ সরকারী বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
ড. আহমদ কায়কাউস আশ্রায়ন প্রকল্পের ঘরগুলো ঘুরে ঘুরে দেখেন। এতে তিনি আশ্রায়ণ প্রকল্পের ৫০টি ঘরে বসবাসকারী উপকারভাগীদের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং তাদের খোঁজ খবর নেন। জবাবে উপকারভোগীরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে তাদের প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনে আসার জন্য ড. আহমদ কায়কাউসকে ধন্যবাদ জানান। এসময় মূখ্য সচিবের সহধর্মীনি মাফরুহা আহমদ তাঁর সাথে ছিলেন। মূখ্য সচিব আশ্রায়ন প্রকল্পের নির্মিত ঘরগুলি দেখে এর নির্মান কাজের প্রশংসা করেন।
পরে মূখ্য সচিব ও তার স্ত্রী মাফরুহা আহমদ প্রকল্প এলাকায় একটি নিম ও একটি আমলকি গাছের চারা রোপন করেন।
মূখ্য সচিবের আশ্রায়ণ প্রকল্প পরিদর্শন উপলক্ষে প্রকল্পের উপকারভোগীদের জীবন মান উন্নয়নে উপজেলা কৃষি, যুব উন্নয়ন, প্রাণী সম্পদ অফিসের যৌথভাবে গৃহিত বেশ কয়েকটি প্রকল্প চালু করা হয়। সচিব এসব প্রকল্প কাজের উদ্বোধন করেন।
আশ্রায়ণ প্রকল্পের উপকারভোগীদের জীবন মান উন্নয়নে কৃষি, গবাদী পশু পালন, সেলাই প্রশিক্ষনে এসব প্রকল্প কাজ করবে। এর মাধ্যমে উপকারভোগীরা প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষন শেষে সহজ শর্তে ঋণ সুবিধা নিয়ে আত্মকর্মসংস্থানে সুযোগ পাবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান।
সেপ্টেম্বর ২০
২০:৫৩ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]