Daily Sunshine

স্কুলের জায়গায় সাবেক প্রধান শিক্ষকের বাড়ী

Share

মোহনপুর প্রতিনিধি: রাজশাহী মোহনপুর উপজেলার গোছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে জায়গা দখল করে সাবেক প্রধান শিক্ষকের বাড়ী নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দাখিল করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে মরহুম সাবেক প্রধান শিক্ষক কুদরতুল্লাহ কবিরাজ বিদ্যালয়ের ১৫ শতক জমি দখল করে বাড়ী নির্মাণ করেছেন। ২০১৮ সালের ১৭ জানুয়ারি প্রধান শিক্ষকের মৃত্যুর পর স্কুলের জমিতেই তাকে কবরস্থ করা হয়। সম্প্রতি তার স্ত্রী রোকেয়া বেওয়া, শামীমা আক্তার গত ৪ সেপ্টেম্বর বাড়ী সংলগ্ন বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের খেলাধূলা ফাঁকা জায়গা দখল করে কাঁটা তারের বেড়া দিয়ে দখলের চেষ্টা করছে।

বর্তমান এডহক কমিটির সভাপতি এমরান আলী জানান, ২০০৫ সালে তৎকালীন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির যোগসাজসে প্রধান শিক্ষক কুদরতুল্লাহ কবিরাজ স্কুলের ৩০ শতক অখন্ড জমির মধ্যে পূবার্ংশে ১৫ শতক জমি দখল করে বাড়ী নির্মাণ করেন। তার স্ত্রী কাটা তারের বেড়া দিয়ে বাকী ফাঁকা অংশ জমি দখল করার পায়তারা করছে। বিদ্যালয় কতৃপক্ষ বাধা দিতে গেলে তিনি অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেন।

প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান জানান, স্কুলের উত্তর অংশে পুকুর এবং পূবাংশে কাঁটা তারে বেড়া দিয়ে দখল করার কারণে শিক্ষার্থীদের খেলাধূলা জায়গা নেই।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মুকতাদ্দির আহম্মেদ সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছি। পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহনের জন্য উদ্ধর্তন কতৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

সানশাইন/১২ সেপ্টেম্বর/রনি

সেপ্টেম্বর ১২
২০:১৮ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]