Daily Sunshine

নাগরিকত্বের প্রথম শর্ত জন্ম নিবন্ধন :শাহানা আক্তার

Share

নুরুজ্জামান,বাঘা : জাতীয় পরিচয় পত্র না থাকলে আপনি ভোট দিতে পারবেন না। কিন্তু জন্ম নিবন্ধর না থাকার অর্থ আপনি এ দেশের নাগরিক নন। নাগরিকত্বের প্রথম শর্ত জন্ম নিবন্ধন। একজন শিশু জন্ম গ্রহন থেকে ৪৫ দিনের মধ্যে জন্ম নিবদ্ধন এবং কোন মানুষ মারা যাওয়ার ৪৫ দিনের মধ্যে তাঁর মৃত্যু সনদ পাওয়াটা মানুষের জন্মগত অধিকার।

১৯৯০ সালে যেমন শিশু অধিকার আইন পাশ করা হয়েছে। অনুরুপ ২০০৪ সালে জাতীয় সাংসদে ৪৫ দিনের মধ্যে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন করার আইন পাশ করা হয়েছে । এমনটি উল্লেখ করে বুধবার বাঘায় পৃথক দু’টি সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্যে রাখেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় রাজশাহী অঞ্চলের উপ-পরিচালক শাহানা আক্তার জাহান।

সকাল ১১ টায় উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পাপিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় অংশ গ্রহণ করেন উপজেলার দুই পৌর সভার একজন মেয়র ও একজন ভারপ্রাপ্ত মেয়র সহ-সচিব, প্রকৌশলী এবং সকল জন প্রতিনিধি। এ ছাড়াও উপজেলা কৃষি বিভাগের সম্মেলন কক্ষে সমবেত হন উপজেলার ৭ ইউপি চেয়ারম্যান,সচিব ও ইউপি সদস্যসহ সকল গ্রাম পুলিশ।

পৃথক দুটি সেমিনারে উপ-পরিচালক শাহানা আক্তার বলেন, এমন একটি সময় গেছে, যখন বাল্য বিয়ে দেয়া, কিংবা প্রথমবার ভালো স্কুল ভর্তি হতে না পারার কারনে কিছু বাবা-মা তাদের সন্তানদের জন্ম নিবন্ধনে বয়স কম-বেশী করেছেন। কিন্তু এখন আর সেই সুযোগ নেই। আমরা সরকারের পক্ষ থেকে জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক ইস্যু নিয়ে কাজ করছি। খুব স্বল্প সময়ের মধ্যে শিশুদের টিকা নেয়া থেকে শুরু করে সরকারের সকল দপ্তরে উপকার নিতে আসা সুবিধা ভুগিদের কাছ থেকে উন্নত দেশের আদলে জন্ম নিবন্ধন চাওয়া হবে।

তিনি জন্ম নিবন্ধনের গুরুত্ব আরোপ করে জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা চাইলে এলাকা ব্যাপী মাংকিং কিংবা ওয়ার্ড ভিত্তিক সকল মসজিদে ইমামদের মাধ্যমে মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে এ বিষয়ে লিপলেট পড়ে শোনানোর ব্যবস্থা করতে পারেন। তাহলে এখন যে পরিমান মানুষ জন্ম নিবন্ধন করছে, তার চেয়ে অনেক বিশি মানুষ জন্ম নিবন্ধন করবে।

সভায় সমাপনী বক্তব্যে বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও আজকের পৃথক দুটি সেমিনারের সভাপতি পাপিয়া সুলতানা বলেন, উন্নত দেশে জন্ম নিবন্ধনের সাথে সব কিছু সম্পৃক্ত। সেখানে জন্ম নিবন্ধন না থাকলে কেউ-কোন নাগরিক সেবা পায়না। এ দিক থেকে আমরা অনেকটা পিছিয়ে রয়েছি। এটি নিশ্চিত করার জন্য ব্যাপক প্রচার প্রচারনা দরকার।
তিনি বলেন, জন্ম নিবন্ধন সরকারের জাতীয় নীতিমালা পরিকল্পনায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তবে এই সেবা গ্রহণের সুযোগ ও গ্রহীতার সংখ্যা নিবন্ধন ব্যবস্থার উন্নয়নে অনেকটায় পিছিয়ে রয়েছে। এক সমিক্ষায় দেখা গেছে, এখন পর্যন্ত পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের মাত্র ৩৭ শতাংশ জন্ম নিবন্ধন হয়েছে।যার মানে দাঁড়ায়, পাঁচ বছরের কম বয়সী এক কোটি শিশু সরকারি হিসাবের বাইরে রয়ে গেছে।

এ কারনে বিভিন্ন সভা সেমিনারের মাধ্যমে এই জন্ম নিবন্ধনের বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়েছেন বর্তমান সরকার। তিনি অত্র উপজেলার ৭ টি ইউনিয়ন এবং ২ টি পৌরসভার সকল জনপ্রতিনিধি ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাধ্যমে এর সঠিক ব্যবহার ও ব্যবকতা বাড়ানোর আহবান জানান।

সভায় অন্যন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বাঘা উপজেলা স্বাস্থ ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: রাশেদ আহাম্মেদ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিউল্লাহ সুলতান ও উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রাফিউন নাহার।

সেপ্টেম্বর ০১
১৬:২০ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]