Daily Sunshine

বাঘায় ১২ মামলায় ওয়ারেন্ট ও ৭ মামলায় সাজাসহ গ্রেফতার-২

Share

স্টাফ রিপোর্টার,বাঘা :রাজশাহীর বাঘায় ১২ মামলায় ওয়ারেন্ট এবং ৭ মামলায় সাজাপ্রাপ্ত প্রতারক শিক্ষক এমদাদুল হক-সহ অপর একজন মাদক মামলার আসামী রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। দীর্ঘ সময় পালিয়ে থাকার পর সোমবার ভোর রাতে রাজশাহী শহরের একটি বাড়ি থেকে প্রতারক ইমদাদুল হককে গ্রেফতার করা হয়। অপর দিকে রাতে মাদক মামলার পলাতক আসামী রফিকুলকে নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

থানা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ছাতারী গ্রামের মৃত আয়েন উদ্দিনের ছেলে এমদাদুল হক(৫৫) এর নামে আদালতে একাধিক প্রতারনা মামলা রয়েছে। এ সমস্ত মামলার মধ্যে ইতোমধ্যে ১২ টি মামলায় ওয়ারেন্ট ইস্যু এবং ৭ টি মামলায় সাজা প্রদান করেছেন মহামান্য আদালত। এর মধ্যে একটি মামলায় সর্বচ্চ সাজা রয়েছে চার বছর ৮ মাস। অপর মামলা গুলোয় এক থেকে তিন বছরের মধ্যে সাজা দেয়া হলেও অর্থ দন্ড জরিমানা করা হয়েছে ৪৫ লক্ষ ২০ হাজার টাকা।

স্থানীয় লোকজন জানান, এমদাদুল হক ছাতারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতার আড়ালে এলাকার অনেক মানুষের কাছে ব্যাংকের চেক জমা দিয়ে সুদের উপর টাকা নিয়ে খরচ করেছেন। এসব টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় তার নামে লোকজন আদালতে চেক জালিয়াতি ও প্রতারনা মামলা দায়ের করলে তিনি এলাকা ছাড়া হন। সর্বশেষ সোমবার রাতে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে বলে আমরা শুনেছি ।

এদিকে অপর একটি মাদক মামলার পলাতক আসামী উপজেলার কলিগ্রাম এলাকার ইয়ার আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম(40)কে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বাঘা থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান, এমদাদুল হক দীর্ঘ সময় পালিয়ে থাকার পর সোমবার ভোর রাতে রাজশাহী শহরের একটি বাড়ি থেকে তাকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে ।একই সাথে মাদক মামলায় নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার হয়েছে রফিকুল ইসলাম। ধৃত আসামীদের সোমবার সকাল ১১ টায় আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আগস্ট ০৯
১৬:০৩ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]