Daily Sunshine

পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ, পানিবন্দী শতাধিক পরিবার

Share

লালপুুর (নাটোর) প্রতিনিধি

পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ থাকায় আষাঢ়ের বৃষ্টির পানিতে নাটোরের লালপুর উপজেলার উত্তর লালপুর ও জৌতদৈবকী এলাকার মাসব্যাপী পানিবন্দী হয়ে মানবেতার জীবনজাপন করছেন শতাধিক পরিবার।

এদিকে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থার  জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারর বরাবর লিখিত আবেদনও করেছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, জলাবদ্ধতায় উপজেলার উত্তর লালপুর ও জৌতদৈবকী গ্রামের শতাধিক বাড়ির চারপাশ ও উঠানে পানি জমে আছে। পানি জমে থাকায় রান্নাসহ চলাচলে চরম বিপদে রয়েছে পনিবন্দী পরিবার গুলি।

জৌতদৈবকী এলাকার এরশাদ আলী শেখ ও মনাসহ স্থানীয়রা বলছেন, ‘জন্মের পর থেকেই তারা দেখে আসছেন এই দুই গ্রামের বৃষ্টির পানি নিষ্কাশন হতো গ্রামের পশ্চিমপাশ দিয়ে মাঠে। কিন্ত যে দিক দিয়ে পানি নিস্কাশন হতো এবছর কয়েকজন গ্রামের মানুষ পানি নিষ্কাশনের ঐ  স্থানে পাকা ওয়াল ও মাটি দিয়ে ভরাট করে দিয়েছে। ফলে পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ থাকায় বর্ষা মৌসুমের বৃষ্টির পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে। আমারা ইউএনও কেও বিষয়টি জানিয়েছি কিন্তু  তিনি এসে দেখে গেলেও এর কোন সমাধান হয়নি।’

মরিয়ম আক্তার বলেন, ‘পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ থাকায় সামান্য বৃষ্টিতেও জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে পানি বাড়ির উঠানে উঠে আসে। আমরা দীর্ঘ একমাস যাবত এই অবস্থায়  জীবন যাপন করছি। আমাদের হাতে পায়ে ঘাসহ ছেলে-মেয়ে নিয়ে খুব বিপদে আছি।’

লালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক পলাশ জানান, ‘ইউএনও সহ স্থানীয়দের নিয়ে আমরা পানি নিষ্কাশনের জন্য উদ্যোগ নিয়েছিলাম কিন্তু পারিবারিক দ্বন্দ্বের কারণে পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেন কাটা যায় নি। তার পরেও আমরা চেষ্টা করছি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা হবে।’
লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) শাম্মী আক্তার জানান, ‘আমি অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থার জন্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের উপর দায়িত্ব দিয়েছি।’

সানশাইন / শামি

জুলাই ২৪
১৯:৪৭ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]