Daily Sunshine

রাজশাহীর এক হাজার দুস্থ পেলেন আরএমপি’র খাদ্যসামগ্রী

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) আয়োজনে মহামারী করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে লকডাউন পরিস্থিতিতে মহানগরীর বোয়ালিয়া থানা এলাকার এক হাজার দরিদ্র, অসহায় ও দুস্থ মানুষকে খাদ্য সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল এ্যান্ড কলেজ মাঠে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে সারা বিশ্ব কঠিন সময় পার করছে। প্রায় ১৫ মাস ধরে বাংলাদেশ করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করছে। করোনা সংক্রমণরোধে কঠোর লকডাউন ও বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। এমন পরিস্থিতিতে মানবিক সেবা নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ। তারা দফায় দফায় খাদ্য সহায়তা দিয়েছে। অক্সিজেন ব্যাংক গঠন করে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা দিয়ে যাচ্ছে। করোনা সংক্রমণের পর থেকে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হিসেবে আমি ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে সহায়তা নিয়ে মানুষের পাশে আছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া খাদ্য সহায়তা বিতরণের পাশাপাশি সমাজের বিত্তশালীদের সহায়তায় ব্যক্তিগত উদ্যোগে মানুষকে দফায় দফায় খাদ্য সহায়তায় প্রদান করে আসছি। সিটি কর্পোরেশনের দুই শতাধিক সিলিন্ডার নিয়ে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা প্রদান করা হচ্ছে। আপনারা সবাই দোয়া করবেন, আগামীতেও যাতে এভাবে আমরা মানুষের পাশে থাকতে পারি। সমাজের বিত্তশালী ও সমার্থবান ব্যক্তিরা নিজ নিজ ক্ষেত্র থেকে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। এ সময় বক্তব্যে মেয়র সঠিকভাবে মাস্ক ব্যবহার সহ মহানগরাবাসীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানের সভাপতির বক্তব্যে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক বলেন, করোনাকালে পুলিশ মানবিক সহায়তা নিয়ে মানুষের পাশে আছে। লকডাউনে ঘরবন্দি মানুষকে খাদ্য সহায়তা ও অক্সিজেন সেবা প্রদান করা হচ্ছে। কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে মহানগরবাসী আমাদের সহযোগিতা করে যাচ্ছেন, এজন তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

আরএমপি পুলিশ কমিশনার আরো বলেন, আমাদের সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে। নিজ ও পরিবারের সুরক্ষায় সবাইকে সঠিক নিয়মে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। রাজশাহীর সকল মানুষ যাতে ভ্যাক্সিন পান, সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে আমি মেয়র মহোদয়কে অনুরোধ করছি।

এরআগে কলেজ মাঠজুড়ে সামাজিক দূরত্ব মেনে সারি সারি করে বসানো হয় এক হাজার চেয়ার। প্রতিটি চেয়ারের পাশে রাখা হয় খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট। প্রতিটি প্যাকেটে আছে সাড়ে ৭ কেজি চাল, ৫ কেজি আটা, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি লবন ও আধা লিটার সয়াবিন তেল।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও সভাপতি কয়েকজনের হাতে প্যাকেট তুলে দিয়ে বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এরপর প্রতিটি ব্যক্তি তার চেয়ারের পাশে রাখা প্যাকেট নিয়ে সামাজিক দূরত্ব মেনে শৃঙ্খলভাবে মাঠ ত্যাগ করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আরএমপি‘র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (এ্যাডমিন) মোঃ সুজায়েত ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) মোঃ মজিদ আলী, উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) মোঃ রশীদুল হাসান, উপ-পুলিশ কমিশনার (বোয়ালিয়া) মোঃ সাজিদ হোসেন, উপ-পুলিশ কমিশনার (লজিস্টিকস) মোঃ সাইফউদ্দীন শাহীন, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ( বোয়ালিয়া) তৌহিদুল আরিফ সহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ।

 

সানশাইন/১৩ জুলাই/রনি

জুলাই ১৩
১৯:৫৭ ২০২১

আরও খবর