Daily Sunshine

বাঘায় এক নেতার বাড়ী থেকে অস্ত্র উদ্ধারে অন্যরা সতর্ক অবস্থানে

Share

নুরুজ্জামান,বাঘা : রাজশাহীর বাঘার আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তার আলীর বাড়ি থেকে মঙ্গলবার রাতে একটি বিদেশী পিস্তল, একটি সার্টার গান ও দুটি বন্দুক সহ ৪৩ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধারের পর অন্যরা আতঙ্কিত হওয়া সহ ব্যাপক সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন এলাকার অভিঙ্গ মহল। তাঁরা বলছেন, সীমান্তবর্তী উপজেলা হওয়ার কারনে এ অঞ্চলে শুধু মুক্তার আলী নয়, অনেক নেতা এবং তাদের সাঙ্গ-পাঙ্গদের বাড়ি তল্লশী করলে ভারি- ভারি বিদেশী অস্ত্র এবং গুলি পাওয়া যাবে। যার বাস্তব চিত্র লক্ষ করা গেছে উপজেলার চরাঞ্চলে।

বাঘার সীমান্তবর্তী পদ্মার চরাঞ্চলের সুধী মহলদের সাথে কথা বললে তারা বলেন, গত দুই মাস পূর্বে এ অঞ্চলে কলার বাগান পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দিদার ব্যাপারী ও মজনুদর্জি পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় প্রকাশ্য দিবালকে চার জন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন। এর ২৪ দিন পর রাতের আধারে গুলিবিদ্ধ হয়ে অপর একজন নিহত এবং আগের ঘটনায় একজন নারী সহ আরো দুজন আহত হয়। অথচ এখন পর্যন্ত এসব অস্ত্র উদ্ধার করতে পারেনি প্রশাসন।

নাম প্রকাশ না করার সর্তে বাঘার দু’জন স্কুল শিক্ষক এবং এলাকার অভিঙ্গ মহলরা বলেন, এর আগে কোন বিষয় নিয়ে অত্র এলাকায় সংঘাত সৃষ্টি হলে উভয় পক্ষের হাতে লাটি-শড়কি, ফালা, হাসুয়া, সয়াফ, লোহার রড, হাতুড়ি ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্র দেখা যেতো। কিন্তু এখন এসব অস্ত্রের সাথে যোগ হয়েছে-বিদেশী আগ্নে আস্ত্র পিস্তল ও সার্টার গান,ককটেল ইদ্যার্দি। তাদের মতে, ভারতীয় সীমান্তবর্তী উপজেলা হওয়ার কারনে এ গুলো সম্ভব হয়েছে।

এদিকে এলাকার সুধীজন সহ অনেকেই অভিযোগ ছুড়ে বলেন, শুধু মেয়র মুক্তার আলী নয়, বাঘার দুটি পৌর সভা এবং সাতটি ইউনিয়নের মধ্যে গোপনে খোঁজ নিলে জানা যাবে কাদের কাছে অস্ত্র আছে। এদের মধ্যে এখন অনেকেই গা-ঢাকা দিয়েছে আবার অনেকেই নিজের বাড়িতে রাখা অস্ত্রগুলো এখন অন্যের বাড়িতে রেখে আসছেন বলে অনেকেই মন্তব্য করেন ।

অনুসন্ধ্যানে জানা যায়, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে আড়ানী পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকার দলীয় এবং বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সন্ধ্যার পর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ সহ ককটেল নিক্ষেপ, গোলা-গুলির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ কয়েকজনকে আটক করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করলেও অস্ত্র উদ্ধারের বিষটি ধরা ছোঁয়ার বাইরে থেকে যায় ।

অপর দিকে গত ১৫ জুন উপজেলার করারী নওশারা হবির চরের কাঁচা রাস্তা সংলগ্ন উত্তর এলাকা থেকে সিপিসি ২-নাটোর ক্যাম্প ও রাজশাহী র‍্যাব -৫ এর যৌথ অভিযানে বিদেশী পিস্তল এবং দেশীয় ধারালো আস্ত্রসহ করারী নওশারা হবির চর এলাকার খোরশেদ মন্ডলের ছেলে একরামুল মন্ডল (৩২) এবং উম্মত মন্ডলের ছেলে সাহাজুল মন্ডল (২৫)কে আটক করে থানায় সোপর্দ করেন।

এর আগে উপজেলার সুলতানপুর এলাকায় বালি উত্তোলনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক ব্যাক্তির গোয়াল ঘরে পিস্তল রেখে তাকে ফাঁসানোর জন্য রাজশাহী-র‌্যাবকে ফোন দেয় ঐ এলাকার জনি ইসলাম ও তার অপর এক বন্ধু । এ ঘটনায় র‌্যাব অস্ত্র উদ্ধার সহ তাদের দু’জনকে আটক করে থানায় সোপার্দ করেন।

সার্বিক বিষয়ে বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)নজরুল ইসলাম বলেন , প্রতিটি বিষয় ক্ষতিয়ে দেখা হবে এবং এ সংক্রান্তে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জুলাই ০৮
১৬:৪৮ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]