Daily Sunshine

রাজশাহীতে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে না দেয়ায় অভিমানে স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। বিষয়টি নিয়ে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। শনিবার (২৬ জুন) দিবাগত রাতের কোন সময় নির্মানাধীন বাথরুমের বাঁশের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ওই স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেন।

রোববার (২৭ জুন) সকালে ঝুলন্ত অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। মৃত স্কুলছাত্রী আম্মারা খাতুন (১৬) সে উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়নের খুটিপাড়া গ্রামের কাউসারুল ইসলামের মেয়ে এবং চারঘাট পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, শনিবার রাতে যে কোনো সময় আম্মারা খাতুম তাদের নিজ বাড়ির নির্মাণাধীন গোসল খানার ভিতর বাঁশের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। বিষয়টি তার পরিবার রোববার ভোরে দেখতে পায়। পরে পরিবারের লোকজন পুঠিয়া থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করে।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি সোহরাওয়ার্দী হোসেন জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে না দেয়ায় পরিবারের প্রতি তার অভিমান ছিলো। ধারনা করা হচ্ছে সে কারনেই মেয়েটি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। কোন অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যপারে একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

 

সানশাইন/২৭ জুন/রনি

জুন ২৭
২০:২৩ ২০২১

আরও খবর