Daily Sunshine

পরকীয়ার জের ধরে মারপিট গৃহবধুর বাবা সহ আটক -২

Share

স্টাফ রিপোর্টার,বাঘা : রাজশাহীর বাঘায় পরকীয়ার জের ধরে বিবাহিত প্রেমিককে মারপিট করে তার পা ভেঙ্গে দিয়েছে গৃহবধুর পরিবার। অপর দিকে গৃহবধুকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে অপহরনের ১৩ দিন পর তার পরিবারের কাছে ফেরত দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে অপহরণ ও ধর্ষনের অভিযোগ করেছেন ঐ গৃহবধুর পিতা। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হরিরামপুর গ্রামে। এ ঘটনায় পুলিশ গৃহবধুর পিতা লাল্টু মিয়া এবং প্রেমিক রোকনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন ।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার হরিরামপুর গ্রামের লাল্টু মিয়া দুই বছর পূর্বে তার মেয়েকে ১৮ বছর বয়স উল্লেখ করে পাশের গ্রামের এক যুককের সাথে বাল্য বিয়ে দেন। এই বিয়ের পর প্রথম দিকে তাদের দাম্পত্য জীবন কিছুটা সুখের হলেও গত ৬ মাস ধরে ঐ গৃহবধু খুলনা জেলার ডাঙ্গা উপজেলার মামুন হোসেনের ছেলে ঢাকার নারায়ন গঞ্জে কর্মরত রোকনুজ্জামান(রোকন) এর সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরকিয়ায় লিপ্ত হয়।

সর্বশেষ গত মাসের ৮ তারিখ ঐ গৃহবধু তার প্রেমিক রোকনের কাছে চলে যায় এবং তাকে বিয়ে করার দাবি জানায়। এমতাবস্তায় রোকন তাকে বিয়ে না করে ১৩ দিন তার কাছে রেখে ঐ গৃহবধুকে বাড়ীতে ফিরিয়ে আনার জন্য মেয়ের বাবাকে ফোন করে। এ সময় গৃহবধুর পিতা লাল্টু মিয়া বিকাশে ২ হাজার টাকা পাঠায় এবং তাদের দুজনকে বাঘায় আসতে বলে। ঘটনার এক পর্যায় গত ২১ তারিখ সন্ধ্যায় প্রেমিক যুগল বাঘার হরিরামপুর গ্রামে গৃহবধুর বাবার বাড়িতে চলে আসে। এ সময় রোকনকে ব্যাপক মারপিট করে তার পা ভেঙ্গে আহত করে স্থানীয় বাঘা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করে গৃহবধুর পিতা ও তাদের আত্নীয় স্বজন।

এদিকে রোকন হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর তৃপল (৯৯৯) এ ফোন করে সে আইনি সহায়তা চাই এবং তাকে নির্যাত করে পা ভাঙ্গার অভিযোগ এনে গৃহবধুর বাবা লাল্টু মিয়া- সহ অগ্যাত আরো কয়েক জনের নামে বাঘা থানায় একটি মামলা দয়ের করেন।

অপর দিকে গৃহবধুকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে অপহরনের ১৩ দিন পর তার পরিবারের কাছে ফেরত দেওয়ায় প্রেমিক রোকনের বিরুদ্ধে মেয়ের বয়স ১৭ বছর উল্লেখ করে অপহরণ ও ধর্ষনের অভিযোগ করেন গৃহবধুর পিতা লাল্টু মিয়া । এতে প্রমানিত হয় তিনি দুই বছর পুর্বে তাঁর মেয়েকে বাল্য বিয়ে দিয়ে ছিলেন।

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)নজরুল ইসলাম জানান, গৃহবধুর পিতা যদি অপহরণকারীর নামে তার মেয়েকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বাড়ি থেকে বের করে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে অভিযোগ করতো তাহলে একটি মামলা হতো। কিন্তু তিনি ও তার লোকজন প্রেমিক রোকনকে মারপিট করে তার পা ভেঙ্গে দেওয়ায় উভয় পক্ষ থেকে থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ মামলায় আমরা উভয় পক্ষের দু’জনকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করেছি।

জুন ২৭
১৫:৩৩ ২০২১

আরও খবর