Daily Sunshine

পাটুরিয়া দিয়ে ঢাকা ফিরছেন কর্মজীবী মানুষ

Share

সানশাইন ডেস্ক:রাজধানী ঢাকার সঙ্গে দেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার হিসেবে খ্যাত দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট।

ঈদের ছুটি শেষে কর্মস্থলে ফিরতে শুরু করেছেন কর্মজীবী সাধারণ মানুষ। এতে করে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে সাধারন মানুষের বাড়তি চাপ বেড়েছে।

পাটুরিয়া ঘাট থেকে ঢাকা বা তার আশেপাশে গন্তব্যে পৌঁছাতে যানবাহন সংকট আর বাড়তি ভাড়ার কারণে সাধারণ মানুষকে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। পর্যাপ্ত যানবাহন না থাকায় সাধারণ মানুষ প্রাইভেটকার, সিএনজি ও মোটরসাইকেলে কয়েকগুণ ভাড়া দিয়ে গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। জেলার বাসগুলো সরাসরি ঢাকার দিকে না যাওয়াতে সাধারণ যাত্রীরা তাদের গন্তব্যে যেতে পারছেন না। এসব যাত্রীদের সড়কে বিভিন্ন স্থানে ভেঙ্গে ভেঙ্গে যাওয়ার ফলে ভোগান্তি আরও বেড়েছে।

রোববার ( ১৬ মে) সকাল ৮ থেকে সাড়ে ১০টা থেকে পর্যন্ত আরিচা মহাসড়কের মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড ও পাটুরিয়া ঘাট এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

লুৎফর রহমান নামের এক যাত্রী বলেন, ‘সাভারের একটি কারখানায় কাজ করি। ঈদের ছুটি শেষ হওয়াতে কর্মস্থলে যাচ্ছি। কুষ্টিয়া থেকে সাতশো টাকা ভাড়া দিয়ে ট্রাকে করে দৌলতদিয়া ঘাটে এসেছি। নৌরুট পার হয়ে পাটুরিয়া থেকে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে আসতে একশো টাকা খরচ হয়েছে। সব জায়গাতেই কয়েকগুণ বেশি ভাড়া দিতে হয়েছে।’

তৌহিদুর রহমান নামের এক যাত্রী বলেন, ‘পরিবার নিয়ে ঢাকার দিকে যাচ্ছি। সঙ্গে স্ত্রী ও সন্তানরা থাকায় বেশি বিপাকে আছি। পরিবারের কথা ভেবে বেশি ভাড়া দিয়ে প্রাইভেটকার ভাড়া করেছি।’

রওশোনারা বলেন, ‘তিন দিনের ছুটিতে ফরিদপুর গ্রামের বাড়িতে গিয়েছিলাম। আজ গাজীপুরে কারখানা খুলছে। দৌলতদিয়া ঘাট পর্যন্ত সিএনজি ও অটো রিকশায় আসছি। পাটুরিয়া থেকে গাজীপুর যাওয়ার উপায় নেই। বাসে,সিএনজি, প্রাইভেটকার সরাসরি গাজীপুর যাচ্ছে না। এখন বাড়তি ভাড়া দিয়ে ভেঙ্গে ভেঙ্গে গন্তব্যে যেতে হবে।’

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিটিসি) আরিচা কার্যালয়ের সহকারী ব্যবস্থাপক ( বাণিজ্য) মহীউদ্দীন রাসেল জানান, পাটুরিয়া দৌলতদিয়া নৌরুটে ১৬টি ফেরি চলাচল করছে। দৌলতদিয়া ঘাট থেকে পাটুরিয়া ঘাটের দিকে যাত্রীদের ভিড় রয়েছে। তবে পাটুরিয়া থেকে দৌলতদিয়াগামী যানবাহন ও যাত্রী তেমন নেই।

সানশাইন/মে ১৬/ইউ

 

মে ১৬
১২:৪০ ২০২১

আরও খবর