Daily Sunshine

টাঙ্গাইলে শ্বশুরের দায়ের কোপে পুত্রবধূর মৃত্যুর অভিযোগ

Share

সানশাইন ডক্সে;টাঙ্গাইলের নাগরপুরে শ্বশুর দা দিয়ে কোপাানোর চারদিন পর পুত্রবধূর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। রোববার (১৮ এপ্রিল) দিবাগত রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়। তিনি উপজেলার মেঘনা গ্রামের টিক্কা খানের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, নবু খানের (৭০) সাথে তার পুত্রবধূ হামিদা বেগমের (৩২) কথা কাটাকাটি লেগেই থাকতো। তারই ধারাবাহিকতায় নবু খান গত বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) বিকেলে পারিবারিক কলহের জেরে দা দিয়ে হামিদাকে কোপায়। গৃহবধূর আত্মচিৎকারে আশে পাশের লোকজন এসে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়।

সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। সেখানে চিকিৎসীন অবস্থায় রোববার দিবাগত রাতে তার মৃত্যু হয়।

হামিদার বোন বলেন, তার বোন হামিদাকে প্রথমে পেছন দিক থেকে তার শ্বশুর কোপ মারে এবং পরে ফিরে দেখতে গেলে তার মাথায় কোপ দিতে যায়, তখন হাত দিয়ে ফেরানোর সময় তার বাম হাতের কয়েকটি আঙ্গুল কেটে যায়। নবু খানের কারণে আমার বোনের অকালে মৃত্যু হয়েছে। তার ফাঁসি দাবি করছি।

এ বিষয়ে নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আনিসুর রহমান বলেন, বিষয়টি জেনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। আইনানুগ বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।
সানশাইন/ইউ

 

 

এপ্রিল ১৯
১০:১৯ ২০২১

আরও খবর