Daily Sunshine

বাচসাস’র সাবেক সভাপতিসহ ৩ জনের সদস্যপদ স্থগিত, একজনের বাতিল

Share

সানশাইন ডেস্ক : বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতির (বাচসাস) সাবেক সভাপতি আবদুর রহমানের সদস্যপদ স্থগিত করা হয়েছে। একইভাবে স্থগিত করা হয়েছে সংগঠনটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল করিম নিশান এবং সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক হামিদ মোহাম্মদ জসিমের সদস্যপদ। সঙ্গে বাতিল করা হয়েছে সাবেক অর্থ সম্পাদক নবীন হোসেনের সদস্যপদ।

৩ মার্চ বাচসাস-এর পক্ষ থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। কারণ হিসেবে সংগঠনের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাবু স্বাক্ষরিত প্রেস নোটে উল্লেখ করা হয় বেশ কিছু অপরাধ।

এরমধ্যে রয়েছে, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নির্বাচিত কমিটির কাছে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বুঝিয়ে না দেওয়া, ৩৮ লাখ টাকার আয় ও ব্যয়ের হিসাবে অসঙ্গতি, অর্থনৈতিক প্রতিবেদনের সঙ্গে অডিট রিপোর্টের মিল না থাকা, সংগঠনের রেজুলেশন খাতা বুঝিয়ে না দেওয়া, সংগঠনবিরোধী কার্যক্রম করা এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির সুনির্দিষ্ট অপরাধ। অভিযোগ প্রমাণের ভিত্তিতে কার্যনির্বাহী পরিষদ এই সদস্যদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

কামরুজ্জামান বাবু জানান, বিগত ১৬ মাস ধরে সংগঠন থেকে মৌখিক ও চিঠির মাধ্যমে নির্বাচিত কমিটি আবদুর রহমান, ইকবাল করিম নিশান ও নবীন হোসেনের কাছে উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো চাইলেও তারা শুধু কালক্ষেপণ করেছেন। তারা ব্যাহত করেছেন সংগঠনের স্বাভাবিক কার্যক্রম। শাস্তিপ্রাপ্ত সদস্যদের বারবার অনুরোধ করার পরও এবং আত্মপক্ষ সমর্থন করে বক্তব্য প্রদানের জন্য চিঠি দিলেও তারা সংগঠনের সবকিছু বুঝিয়ে দেননি।

অবশেষে কার্যনির্বাহী পরিষদ গত ১৬ জানুয়ারি একটি নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক রফিকুজ্জামান, বরুণ শংকর ও মুজতবা সউদ। পদাধিকার বলে সদস্য ছিলেন সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। তদন্ত কমিটি একাধিক বৈঠক করে বিভিন্ন কাগজপত্র যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে প্রথমে সাবেক অর্থ-সম্পাদক নবীন হোসেনকে তলব করে। নবীন হোসেন তদন্ত কমিটিকে ৩৮ লাখ টাকার মধ্যে মাত্র ১১ লাখ ৩৭ হাজার ৪০০ টাকার বিল-ভাউচার দিতে পেরেছেন। বাকি টাকার খরচের হিসাব তিনি জানেন না বলে জানিয়েছেন। তিনি নিজেই বলেছেন, অডিট রিপোর্টে ঝামেলা আছে। তিনি জানান, কোন কোন খাত থেকে এই ৩৮ লাখ টাকা এসেছে, তা তিনি জানেন না এবং ১১ লাখ ৩৭ হাজার ৪০০ টাকার বাইরে অন্য কোনও বিল-ভাউচার তার কাছে নেই।

নবীন হোসেনের বক্তব্যের সূত্র ধরেই সাবেক সভাপতি আবদুর রহমান ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল করিম নিশানকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, রেজুলেশন খাতাসহ তদন্ত কমিটির সঙ্গে দেখা করার অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দিলেও তারা কেউই উপস্থিত হননি।

পরে তদন্ত কমিটি প্রাপ্ত কাগজপত্র দেখে এবং সাবেক অর্থ সম্পাদক নবীন হোসেনের জবানবন্দির আলোকে চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন দেয়। প্রতিবেদনে বিস্তারিত আলোচনা এনে তারা জানান যে, ‘২০১৭-২০১৯ বর্ষে আবদুর রহমান-ইকবাল করিম নিশানের মেয়াদকালে অর্থনৈতিক বিষয়ে নানাধাপে অনিয়ম ও অপরাধ হয়েছে। সেখানে অর্থ সম্পাদক নিজেও জড়িত ছিলেন। ৩ জন একে অপরের যোগসাজশে এই অপরাধ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে সংগঠনের ক্ষতি করেছেন। এজন্য তিন জনই সমানভাবে দোষী।’

তদন্ত কমিটি বাচসাস কার্যনির্বাহী পরিষদকে সংগঠন হতে এই ৩ জন সদস্যের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করার সুপারিশ করেছে। সংগঠন থেকে ৩ জনের প্রাথমিক সদস্যপদ স্থগিত অথবা বাতিল করার জন্য সুপারিশ করা হয়েছে।

‌‘তদন্ত কমিশনের প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে এবং সুপারিশকে আমলে নিয়েছে কার্যকরী পরিষদ। দেশের সবচাইতে পুরনো ও ঐতিহ্যবাহী সাংবাদিকদের এই সংগঠনে যেন ভবিষ্যতে আর কেউ এ ধরনের কাজের সঙ্গে জড়িত হওয়ার সাহস না দেখাতে পারে, এজন্য কার্যকরী পরিষদ নজির স্থাপন করেছে।’ এমনটাই বললেন বাচসাস-এর বর্তমান সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাবু। তিনি বেসরকারি টিভি চ্যানেল নাগরিক-এর অনুষ্ঠান প্রধান হিসেবে কর্মরত।

জানা যায়, তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী কার্যনির্বাহী পরিষদ আবদুর রহমান ও ইকবাল করিম নিশানের প্রাথমিক সদস্যপদ আগামী দ্বিবার্ষিক সাধারণ সভা পর্যন্ত স্থগিত করেছে। সাবেক অর্থ সম্পাদক নবীন হোসেনের প্রাথমিক সদস্যপদ বাতিল করা হয়েছে।

অন্যদিকে জানায় যায়, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বর্তমান সভাপতি ফালগুনী হামিদ, সাধারণ সম্পাদকসহ সংগঠনের কার্যক্রম নিয়ে আপত্তিকর ভাষায় এবং উসকানিমূলক বক্তব্য প্রকাশ করা হয়েছে। এ বিষয়ে হামিদ মোহাম্মদ জসিমকে শোকজ করা হলে তিনি কোনও জবাব দেননি। উল্টো আবারও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সংগঠনের বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে আপত্তিকর পোস্ট দিতে থাকেন তিনি। এজন্য কার্যকরী পরিষদ হামিদ মোহাম্মদ জসিমের প্রাথমিক সদস্যপদ আগামী এজিএম পর্যন্ত স্থগিত করেছে।

 

সানশাইন/০৩ মার্চ/রনি

মার্চ ০৩
২১:০১ ২০২১

আরও খবর

Subcribe Youtube Channel

বিশেষ সংবাদ

সান্তাহারে বাল্যবিয়ের কথা জানালেও পদক্ষেপ নেয়নি প্রশাসন “প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে জনসাধারণের প্রশ্ন“

সান্তাহারে বাল্যবিয়ের কথা জানালেও পদক্ষেপ নেয়নি প্রশাসন “প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে জনসাধারণের প্রশ্ন“

১৮ বছরের আগে বিয়ে নয়, একুশের আগে সন্তান নয়, বাল্যবিয়ে সামাজিক ব্যাধি, সবাই মিলে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ করি’ এই শ্লোগানে সরকার নানা রকম কর্মসূচি পালন করে আসছে। বাল্যবিয়ের বিরুদ্ধে সরকারিভাবে কঠোর নির্দেশ থাকলেও প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টদের অবহেলা ও উদাসীনতার কারণে বগুড়ার আদমদীঘিতে একটি বাল্য বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। বাল্যবিয়ে হচ্ছে এমন সংবাদ জানানোর

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

৫২ হাজার শুন্যপদের তালিকা প্রকাশ করলো এনটিআরসিএ

৫২ হাজার শুন্যপদের তালিকা প্রকাশ করলো এনটিআরসিএ

বেসরকারি স্কুল,কলেজ,মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এন্ট্রি লেভেলে ৫৪ হাজার ৩০৭ টি পদে শিক্ষক নিয়োগে তৃতীয় গনবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের দ্বায়িত্বে থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এনটিআরসিএ।মঙ্গলবার ৩০ মার্চ এ গনবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।আগামী ৪ এপ্রিল সকাল ১০ টা থেকে ৩০ এপ্রিল রাত ১২ টা পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করা যাবে। তবে

বিস্তারিত