Daily Sunshine

তিন বিঘা জমি জুড়ে একটি আমগাছ

Share

স্টাফ রিপোর্টার : একটি আমগাছ। দূর থেকে দেখলে মনে হবে বিশালাকৃতির বটগাছ। কাছে গেলেই কেবল ঘোর কাটবে। তিন বিঘা জমিজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সূর্যপুরী জাতের এই আমগাছের বিশালাকৃতি যেন কল্পনাকেও হার মানায়। ধারণা করা হয় বিস্তৃতির দিক দিয়ে এটি দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে অন্যতম। যার আনুমানিক উচ্চতা ৮০-৯০ ফুট। আর পরিধি ৩৫ ফুটের মতো। ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার হরিণমারী (নয়াপাড়া) গ্রামে রয়েছে ঐতিহ্যবাহী এই আমগাছটি।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গাছটি দেখার জন্য ভিতরে প্রবেশ করতে হলে প্রতিজন দর্শনার্থীকে ২০ টাকা মূল্যের টিকিট কাটতে হয়। টিকিটের টাকা থেকে যা আয় হয় তা দিয়ে দুটি পরিবার চলে ও গাছটির পরিচর্যা করা হয়। প্রতিদিন গড়ে ৫০-৬০ জন দর্শনার্থী দেখতে আসেন এ গাছ। আমগাছ দেখিয়ে দৈনিক উপার্জন হয় এক হাজারের মতো টাকা।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সম্মুখভাগে প্রাচীর দিয়ে ঘেরা বিশালাকার এই আমগাছটির ডালগুলো বেশ নজরকাড়া। নদীর ঢেউয়ের মতো জেঁকে বসেছে মাঠজুড়ে। একটু উপরে উঠে আবার নেমেছে মাটিতে। কান্ড থেকে বেরিয়েছে প্রায় ২০টি ডাল। ডালগুলোর আকারও মাঝারি আমগাছের মতো।

কথা হয় গাছটির বর্তমান মালিক নূর ইসলামের সঙ্গে। তিনি জানান, গাছটির বয়স প্রায় ২০০ বছরেরও বেশি। এর বর্তমান মালিক নূর ইসলাম ও তার ভাই সাইদুর রহমান। গাছটি নূর ইসলামের পিতা কন্টু মোহাম্মদের দাদা রোপণ করেন। তবে তিনি জানেন না ওই ব্যক্তির নাম এবং ঠিক কবে গাছটির চারা রোপণ করা হয়েছিল।

তিনি আরও জানান, ২০০ বছরের বেশি বয়স হলেও গাছটিতে প্রতি বছর প্রায় ৮০ মণের বেশি আম পাওয়া যায়। এগুলোর মূল্য বাজারের অন্যান্য আমের চেয়ে ঢের বেশি। আমের মৌসুমে গাছের পাশেই তা বিক্রি করা হয়। এ ছাড়াও বিভিন্ন উৎসবে, যেমন ঈদ, পূজা কিংবা পহেলা বৈশাখে শত শত দর্শনার্থী গাছটি দেখতে ভিড় জমায়। বিদেশী দর্শনার্থীরাও মাঝে মাঝে দেখতে আসে গাছটি। গাছটি ঘিরে পিকনিক স্পট গড়ে তোলার কথা ভাবছেন তারা।

উত্তরের শান্ত জনপদের সাক্ষী এই গাছটির শাখাগুলোতে বসে থাকা কিংবা হাঁটাচলা করা গেলেও গাছের সামনে নোটিসে লেখা, ‘গাছে ওঠা বা পাতা ছেঁড়া নিষেধ।’

 

 

 

সানশাইন/২৯ জানুয়ারি/রনি

জানুয়ারি ২৯
২০:৪৮ ২০২১

আরও খবর

বিশেষ সংবাদ

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

স্টাফ রিপোর্টার ,রাবি: টুকিটাকি চত্বর। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের চিরপরিচিত একটি চত্বর। প্রায় ৩৫ বছর আগে বিশ্ববিদ্যালয়টির লাইব্রেরি চত্বরে ‘টুকিটাকি’ নামের ছোট্ট একটি দোকান চালু হয়। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মুখে মুখে টুকিটাকি নামটি ছড়িয়ে পড়ে। দোকানটি ভীষণ জনপ্রিয়তা পায়। ফলে সবার অজান্তেই একসময় লাইব্রেরি চত্বরটির নাম হয়ে যায়

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

আসছে ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি

আসছে ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি

সানশাইন ডেস্ক : মান্থলি পেমেন্ট অর্ডারভুক্ত (এমপিও) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমতি পেলে চলতি মাসেই গণবিজ্ঞপ্তি জারি করতে পারে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এনটিআরসিএ সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশের এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫৭ হাজার ৩৬০টি শূন্য পদের তালিকা

বিস্তারিত