Daily Sunshine

বন্যার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে কৃষকদের প্রণোদনা দিচ্ছেন সরকার: এনামুল হক

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর বাগমারায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণের নিমিত্তে কৃষি মন্ত্রনালয়ের “কৃষি পুনর্বাসন সহায়তা” প্রদান করা হয়েছে। ২০২০-২১ অর্থবছরে রবি মৌসুমে বোরো ধান, গম, ভুট্টা, সরিষা, সূর্যমুখী, চিনাবাদাম, শীতকালীন মূগ, পেঁয়াজ ও পরবর্তী খরিপ-১ মৌসুমে গ্রীষ্মকালীন মূগ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে এ সহায়তা প্রদান করা হয়।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্দ্যেগে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ আহম্মেদের সভাপতিত্বে এবং কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার সাইফ আব্দুল্লাহর পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন রাজশাহী-৪ আসনের সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

এসময় ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সরকার বিনামূল্যে সার ও বিভিন্ন ফসলের বীজ বিতরণ করে চলেছে। আওয়ামী লীগ সরকার কৃষি বান্ধব। কৃষকের পাশে সব সময় থাকে বর্তমান সরকার। প্রতি বছর উপজেলার হাজার হাজার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে শষ্যের বীজ প্রদান করে চলেছে। কৃষকদের উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করেছে এই সরকার। প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারনে দেশের কৃষকরা অপূরনীয় ক্ষতির মধ্যে পড়েছে। কৃষকরা যেন তাদের সেই ক্ষতি পূরণ করতে পারে সে লক্ষ্যেই সরকার বিনামূল্যে সার ও বীজ প্রদান করে যাচ্ছেন।

উল্লেখ্য উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভায় ১১ হাজার ৩০০ জন কৃষকের মাঝে পুনর্বাসন সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে গম-৩ হাজার জন, সরিষা-৩ হাজার ৫০০ জন, সূর্যমুখী-৫৫০ জন, চিনাবাদাম-৭৫০ জন, মসুর-৮০০ জন, খেসারী-৯০০ জন, টমেটো-৬০০ জন ও মরিচ-১ হাজার ২০০ জনকে দেওয়া হয়। এদিকে প্রতিবিঘার জন্য গম বীজ-২০ কেজি, সরিষা ফসলের জন্য বীজ-১ কেজি, ডিএপি-১০ কেজি, এমওপি-১০ কেজি, চিনাবাদাম ফসলের জন্য বীজ-১০ কেজি, সূর্যমুখী ফসলের জন্য বীজ (হাইব্রিড) ১ কেজি, মসুরের জন্য বীজ-৫ কেজি, ডিএপি-৫ কেজি, এমওপি-৫ কেজি, খেসারির জন্য বীজ-৮ কেজি, ডিএপি-৫ কেজি, এমওপি-৫ কেজি, টমেটোর জন্য বীজ-০.০৫ কেজি, ডিএপি-১০ কেজি, এমওপি-১০ কেজি এবং মরিচ ফসলের জন্য বীজ-০.৩০ কেজি, ডিএপি-১০ কেজি, এমওপি-৫ কেজি উপকরণ সহায়তা প্রদান করা হয়।

অপরদিকে চলতি মৌসুমে উপজেলায় ৪ হাজার ৮৫০ জন কৃষকের জন্য পুনর্বাসন সহায়তা প্রদান করা হয়। তন্মধ্যে বোরো ধান-৬০০ জন, গম-২৩০ জন, সরিষা-১ হাজার ৪৭০ জন, ভুট্টা-২ হাজার ১৫০ জন, পেঁয়াজ-৩৫০ জন ও গ্রীষ্মকালীন মুগ-৫০ জন।

সংযুক্ত নীতিমালাায় একটি কৃষক পরিবার প্রতি বিঘার জন্য ১ কেজি করে বোরো ধান হাইব্রিড বীজ, ২০ কেজি করে গম বীজ অথবা ২ কেজি করে ভূট্টা বীজ অথবা ১ কেজি করে সরিষা বীজ, ৫ কেজি করে শীতকালীন/গ্রীষ্মকালীন মুগ বীজ অথবা ১০ শতক জমির জন্য ০.২৫ কেজি পেঁয়াজ বীজ পাবেন। এ কর্মসূচীর আওতায় বোরো ধান, গম ও সরিষা ফসলের জন্য প্রতিজনে বিঘা প্রতি ১০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার এবং গ্রীষ্মকালীন মূগ ও শীতকালীন মূগ ফসলের জন্য প্রতিজনে বিঘা প্রতি ১০ কেজি ডিএপি ও ৫ কেজি এমওপি সার পাবেন। একইভাবে ভূট্টা ফসলের জন্য প্রতিজনে বিঘা প্রতি ২০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার এবং পেঁয়াজের জন্য প্রতিজনে বিঘা প্রতি ৫ কেজি ডিএপি ও ৫ কেজি এমওপি সার পাবেন।

 

সানশাইন/৫ নভেম্বর/এসআর

নভেম্বর ০৫
২১:৫৬ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শীতের আমেজে আহা…ভাপা পিঠা

শীতের আমেজে আহা…ভাপা পিঠা

রোজিনা সুলতানা রোজি : প্রকৃতিতে এখন হালকা শীতের আমেজ। এই নাতিশীতোষ্ণ আবহাওয়ায় ভাপা পিঠার স্বাদ নিচ্ছেন সবাই। আর এই উপলক্ষ্যটা কাজে লাগচ্ছেন অনেক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। লোকসমাগম ঘটে এমন মোড়ে ভাপা পিঠার পসরা সাজিয়ে বসে পড়ছেন অনেকেই। ভাসমান এই সকল দোকানে মৃদু কুয়াশাচ্ছন্ন সন্ধ্যায় ভিড় জমাচ্ছেন অনেক পিঠা প্রেমী। রাজশাহীর বিভিন্ন

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

৭ ব্যাংকের সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

৭ ব্যাংকের সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

সানশাইন ডেস্ক: সাত ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার পদের সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষা (২০১৮ সালভিত্তিক) স্থগিত করা হয়েছে। আগামী ৫ ডিসেম্বর রাজধানীর ৬৭টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। শনিবার (২৮ নভেম্বর) ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির (বিএসসি) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। যে সাতটি ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষার স্থগিত করা হয়েছে সেগুলো হলো হলো—সোনালী

বিস্তারিত