Daily Sunshine

রাজশাহী বিভাগে একদিনে করোনায় আক্রান্ত আরও ৭৬

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী বিভাগে আরও ৭৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার নমুনা পরীক্ষায় এসব কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হন। এ দিন বিভাগের ১১১ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন।

শুক্রবার রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নতুন করোনা রোগীদের মধ্যে ৩৬ জনের বাড়ি বগুড়া। এছাড়া রাজশাহীতে ৩১ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে একজন, নওগাঁয় দুইজন, এবং সিরাজগঞ্জে ছয়জন শনাক্ত হয়েছেন।

বিভাগে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ হাজার ৭৪৮ জন। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ৭ হাজার ৯৫ জন শনাক্ত হয়েছেন বগুড়ায়। এছাড়া রাজশাহীতে ৪ হাজার ৭২৭ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৭৩৮ জন, নওগাঁয় এক হাজার ২১৭ জন, নাটোরে ৯০৬ জন, জয়পুরহাটে এক হাজার ১১ জন, সিরাজগঞ্জে ২ হাজার দুইজন এবং পাবনায় এক হাজার ৫২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার বিভাগের জয়পুরহাটে একজন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। বিভাগে এ পর্যন্ত করোনায় ২৭৯ জনের মৃত্যু হলো। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ১৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বগুড়ায়। এছাড়া রাজশাহীতে ৪২ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৪ জন, নওগাঁয় ১৭ জন, নাটোরে নয়জন, জয়পুরহাটে সাতজন, সিরাজগঞ্জে ১৩ জন এবং পাবনায় ৯ জন মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার সুস্থ হওয়া ১১ জনের মধ্যে ৫১ জনের বাড়ি রাজশাহী। এছাড়া বগুড়ার ৩৮ জন, নাটোরের ২১ জন এবং জয়পুরহাটের একজন করোনা জয় করেছেন।

বিভাগে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৪ হাজার ৬৪০ জন। এর মধ্যে রাজশাহীর ৩ হাজার ৫৭৪ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৬২৩ জন, নওগাঁর এক হাজার ৮৬ জন, নাটোরের ৭১৭ জন, জয়পুরহাটের ২৩০ জন, বগুড়ার ৬ হাজার ৭১ জন, সিরাজগঞ্জের এক হাজার ৪০৬ জন এবং পাবনার ৯৩৩ জন করোনামুক্ত হয়েছেন।

সানশাইন/১১ সেপ্টেম্বর/এমওআর

সেপ্টেম্বর ১১
১৫:১০ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আলোকিত সিটি পেয়েছেন মহানগরবাসী

আলোকিত সিটি পেয়েছেন মহানগরবাসী

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী মহানগরীর শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান চত্বরে দাঁড়িয়ে আছে মাস্তুল আকৃতির মজবুত দুইটি পোল। প্রতিটি পোলের উপর রিং বসিয়ে তার চতুরদিকে বসানো হয়েছে উচ্চমানের এলইডি লাইট। আর সেই লাইটের আলোয় আলোকিত বিস্তৃত এলাকা। শুধু শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান চত্বর নয়, এভাবে মহানগরীর আরো গুরুত্বপূর্ণ ১৪টি চত্বর আলোকিত হয় প্রতি

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সানশাইন ডেস্ক : করোনা মহামারিতে সাধারণ ছুটিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার সঙ্গে স্থগিত ছিল সরকারি-বেসরকারি চাকরির নিয়োগ প্রক্রিয়া। এ কয়েক মাসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পায়নি দেশের শিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠী। অংশ নিতে পারেনি কোনো নিয়োগ পরীক্ষাতেও। অনেকেরই বয়স পেরিয়ে গেছে ৩০ বছর। স্বাভাবিকভাবেই সরকারি চাকরির আবেদনে সুযোগ শেষ হয়ে যায় তাদের। তবে এ দুর্যোগকালীন

বিস্তারিত