Daily Sunshine

দক্ষিণ সুদানে কার্গো বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ১৭

Share

সানশাইন ডেস্ক : দক্ষিণ সুদানে জুবা বিমানবন্দরের কাছে একটি কার্গো বিমান ওড়ার কিছুক্ষণ পরই বিধ্বস্ত হয়েছে। গতকাল শনিবার (২২ আগস্ট) সকালে এই দুর্ঘটনায় অন্তত ১৭ জন নিহত হয়েছেন এবং একজনকে মারাত্মক আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীর বরাতে এ খবর জানিয়েছে চীনের বার্তা সংস্থা শিনহুয়া।

বিমান দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আপার নীল ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক জোসেফ মায়োম ফোনে শিনহুয়াকে জানান, একজন আরোহীকে সংকটাপন্ন অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেছেন, ‘আমি যা দেখেছি, তাতে ব্যথায় চিৎকার করতে থাকা এক যাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে এবং দ্রুত হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। ১৫ জন আরোহী ও দুজন ক্রুর লাশ দেখেছি আমরা, মোট ১৭ জন।’

সাউথ ওয়েস্ট এভিয়েশনের বিমানটি জুবার হাই রেফারেন্ডার আবাসিক এলাকার কাছে বিধ্বস্ত হয়। বিধ্বস্ত বিমানে তখনও দাউ দাউ করে আগুন জ্বলছিল বলে জানান মায়োম।

জুবা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক কার কুল জানান, সকাল ৯টায় বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের বেতন নিয়ে আবেইল ও ওয়া শহরের দিকে যাচ্ছিল এই বিমান। এছাড়া বিমানটিতে মোটরবাইক, কিছু যন্ত্রাংশ ও খাদ্যসামগ্রী ছিল। আর কোনও আরোহী ছিলেন না বলেছেন কুল।

বিমানবন্দরের এই কর্মকর্তা বলেছেন, ঠিক কতজন আরোহী হতাহত হয়েছেন কিংবা জীবিত উদ্ধার করা গিয়েছে তা সঠিক জানাতে পারেনি বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। আনুষ্ঠানিকভাবে স্পষ্ট তথ্য পেলেই বিস্তারিত জানানো যাবে বলেছেন কুল।

২০১৮ সালে দক্ষিণ সুদানের পূর্বাঞ্চলীয় হ্রদ এলাকায় একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১৭ জনের মৃত্যু হয়। ওই ঘটনার পর গত বছরের এপ্রিলে এক ঘোষণায় দক্ষিণ সুদানিজ প্রেসিডেন্ট সালভা কির ২০ বছরের বেশি সময় ধরে যাত্রী বহন করা বিমান নিষিদ্ধ করেন।

সানশাইন/২৩ আগস্ট/এমওআর

আগস্ট ২৩
১২:৩৬ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আসাদুজ্জামান নূর : ছোটবেলা থেকেই আঁকাআঁকির প্রতি নেশা ছিল জুবাইদা খাতুন তন্বীর। ক্লাসের ফাঁকে, মন খারাপ থাকলে বা বোরিং লাগলে ছবি আঁকতেন তিনি। কারও ঘরের ওয়ালমেট, পরনের বাহারি পোশাক ইত্যাদি দেখেই এঁকে ফেলতেন হুবহু। এই আঁকাআঁকির প্রতিভাকে কাজে লাগিয়েই হয়েছেন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা। তুলির খোঁচায় পরিধেয় পোশাকে বাহারি নকশা, ছবি, ফুল

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

সানশাইন ডেস্ক : সর্বশেষ ১৯৯১ সালে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানো হয়। এরপর অবসরের বয়স বাড়ানো হলেও প্রবেশের বয়স আর বাড়েনি। বেকারত্ব বেড়ে যাওয়া, সেশনজট, নিয়োগের ক্ষেত্রে দীর্ঘসূত্রতা, অন্যান্য দেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রার্থীরা। তবে এ বিষয়ে উদ্যোগ নেয়নি

বিস্তারিত