Daily Sunshine

রাজশাহী ও বগুড়ায় করোনায় আরও তিনজনের মৃত্যু

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী বিভাগে করোনাভাইরাসে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (০৮ আগস্ট) বিভাগের রাজশাহী জেলায় একজন এবং বগুড়ায় দুইজনের মৃত্যু হয়। রোববার বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. গোপেন্দ্রনাথ
আচার্য্য এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, গোটা বিভাগে এখন মৃতের সংখ্যা ১৯৩ জন। এর মধ্যে বগুড়ায় সর্বোচ্চ ১১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া রাজশাহীতে ২৯ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে আটজন, নওগাঁয় ১৪ জন, নাটোরে একজন, জয়পুরহাটে চারজন, সিরাজগঞ্জে ১১ জন এবং পাবনায় ৯ জন মারা গেছেন।

শনিবার বিভাগে নতুন ১৬১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৫৬ জনের বাড়ি বগুড়ায়। এছাড়া এ দিন রাজশাহী জেলার ৪২ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২৯ জন, নওগাঁর নয়জন, জয়পুরহাটের ১১ জন এবং সিরাজগঞ্জের ১৪ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

বিভাগে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ হাজার ২৫৫ জন। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ৫ হাজার ২৩৬ জন শনাক্ত হয়েছেন বগুড়ায়। এছাড়া রাজশাহীতে ৩ হাজার ৫৭৪ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৫৪৮, নওগাঁয় ৯৯৯, নাটোরে ৬২৮, জয়পুরহাটে ৮১৬, সিরাজগঞ্জে ১ হাজার ৫৮৩ জন এবং পাবনায় ৮৭১ জন শনাক্ত হয়েছেন।

শনিবার বিভাগের ২৬৭ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন। এর মধ্যে ১০২ জনের বাড়ি রাজশাহী। এর বাইরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১৩ জন, নওগাঁর ১৩ জন, বগুড়ার ৫৬ জন এবং সিরাজগঞ্জের ১৪ জন করোনামুক্ত হয়েছেন।

রাজশাহী বিভাগে এ পর্যন্ত করোনা জয় করেছেন ৮ হাজার ৬৬৮ জন। এর মধ্যে রাজশাহীর ১ হাজার ৮৪১ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২৫১ জন, নওগাঁর ৮৫২ জন, নাটোরের ২৫৭ জন, জয়পুরহাটের ২১১ জন, বগুড়ার ৩ হাজার ৩৩২ জন, সিরাজগঞ্জের ৬৭০ জন এবং পাবনার ৬৫৪ জন করোনামুক্ত হয়েছেন।

সানশাইন/০৯ আগস্ট/এমওআর

আগস্ট ০৯
১৩:৩৮ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

নতুন রূপ পাচ্ছে রাজশাহীর ঐতিহ্যবাহী সোনাদীঘি

নতুন রূপ পাচ্ছে রাজশাহীর ঐতিহ্যবাহী সোনাদীঘি

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের উদ্যোগে মহানগরীর ঐতিহ্যবাহী সোনাদীঘি নতুন রূপ পেতে যাচ্ছে। একই সাথে সোনাদীঘি ফিরে পাচ্ছে তার হারানোর ঐতিহ্য। সোনাদীঘিকে এখন অন্তত তিন দিক থেকে দেখা যাবে। দিঘিকে কেন্দ্র করে গড়ে তোলা হবে পায়ে হাঁটার পথসহ মসজিদ, এমফি থিয়েটার (উন্মুক্ত মঞ্চ) ও তথ্যপ্রযুক্তি

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সানশাইন ডেস্ক : করোনা মহামারিতে সাধারণ ছুটিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার সঙ্গে স্থগিত ছিল সরকারি-বেসরকারি চাকরির নিয়োগ প্রক্রিয়া। এ কয়েক মাসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পায়নি দেশের শিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠী। অংশ নিতে পারেনি কোনো নিয়োগ পরীক্ষাতেও। অনেকেরই বয়স পেরিয়ে গেছে ৩০ বছর। স্বাভাবিকভাবেই সরকারি চাকরির আবেদনে সুযোগ শেষ হয়ে যায় তাদের। তবে এ দুর্যোগকালীন

বিস্তারিত