Daily Sunshine

বাগমারায় স্বেচ্ছাশ্রমে গ্রামবাসীর সাঁকো নির্মাণ

Share

স্টাফ রিপোর্টার, বাগমারা : সপ্তাহ তিনেক আগে প্রবল পানির চাপে উপজেলার দ্বীপপুর ইউপি’র লাউবাড়িয়া গ্রামে ফকিরানী নদীর তীরে পাউবো’র বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধটি ভেঙ্গে যায়। এতে দুই ইউনিয়নের ১০/১২ টি গ্রামের সাথে উপজেলা সদরের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। বাঁধের এই ভাঙ্গনের ফলে বাগমারা ও পাশ্ববর্তী আত্রাই উপজেলার বেশ কিছু বিলের মাছ ও ফসলী জমির ব্যাপক ক্ষতি হয়। বাড়তে থাকে গ্রামবাসীর দূর্ভোগ।

গ্রামবাসীরা জানায়, ভাঙ্গনের প্রায় তিন সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও ভাঙ্গনের স্থানে নৌকা বা আাঁড় দিয়ে পারাপারের কোন উদ্যোগে নেয়নি ইউনিয়ন পরিষদ। ফলে এই বাঁধের উপর দিয়ে প্রায় ১০/১২ টি গ্রামের লোকজনের যাতাযাত বন্ধ হয়ে গেছে। এখন কোরবানী জমে ওঠবে। বাঁধের এই ভাঙ্গনের কারণে বাঁধের আশেপাশে অন্তত চারটি ছোট বড় হাটে গরু ছাগল সহ অন্যান্য পন্য সামগ্রী নিয়ে যেতে পারছে না গ্রামবাসী। কৃষকরা জানান, এই ভাঙ্গনের কারণে আমরা চরম বিপদের সম্মুখীন হয়েছি। আমরা কোরবানীন পশু বিক্রি করতে পারছি না। অন্যান্য পন্য হাটে নিতে পারছি না। এই বেকায়দা অবস্থায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা পরিষদে গিয়ে কোন কূলকিনারা না পেয়ে আমরা নিজেরাই সাকো নির্মানের উদ্যোগ নিয়েছি।

গতকাল বুধবার ভাঙ্গন কবলিত স্থানে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে প্রায় শতাধিক গ্রামবাসী সাঁকো নির্মানে নিয়োজিত হয়েছে। এসব কাজের বদারকি করছেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বিকাশ চন্দ্র ভৌমিক। তিনি জানান, ঈদের আগেই এখানে আমরা এখানে যোগাপযোগ স্থাপন করতে চাই। গ্রামাবসীরা যে যার মত বাঁশ কাঠ ও শ্রম দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করছে। তিনি সহ কয়েকজন গ্রামবাসী জানান, এখানে অস্থায়ী পারাপারের জন্য উপজেলা পরিষদ থেকে একটি নৌকা দেওয়া হলেও সেটি দুই দিনের মাথায় আকেজো হয়ে পড়ে আছে। এই আবস্থায় স্থানীয় কয়েকজন নৌকার মাঝি এখানে ১০ টাকা করে নিয়ে পারাপার শুরু করে। এতে দূর্ভোগে পড়ে যান সাধারন লোকজন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ আহম্মেদ জানান, বিপদকালীন সেখানে একটি নৌকা দেওয়া হয়েছে। সেটি কেন চলছে না বিষয়টি খোজ নেওয়া হবে। তবে সেখানে সাকোঁ নির্মানে আমরা গ্রামবাসীর পাশে আছি। অতি দ্রুত সাকোটি নির্মাণ করা হবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।

সানশাইন/২৯ জুলাই/এমওআর

জুলাই ২৯
১৯:০৩ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শীঘ্রই শেষ হচ্ছে করোনার প্রকোপ!

শীঘ্রই শেষ হচ্ছে করোনার প্রকোপ!

সানশাইন ডেস্ক : গোটা বিশ্বকে ভালোই ভুগিয়েছে ছোট্ট একটি জীবাণু। বিশ্বের নানা দেশ ও অঞ্চলে আধিপত্য বিস্তার করে এই ভাইরাস এখন অনেকটা সহনীয় হয়ে এসেছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের দাবি, এখন ৪০ শতাংশ মানুষ করোনা আক্রান্ত হলেও তাদের কোনো উপসর্গ প্রকাশ পাচ্ছে না। আর এতেই আশার কথা শোনাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এদিকে,

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সানশাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে সরকারি চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না হওয়ায় বেড়েছে চাকরিপ্রার্থীর সংখ্যা, সঙ্গে ফাঁকা পদের সংখ্যাও বাড়ছে। সরকারি চাকরিতে এখন তিন লাখ ৮৭ হাজার ৩৩৮টি পদ ফাঁকা পড়ে আছে, যা মোট পদের ২১ দশমিক ২৭ শতাংশ। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলছেন, অগাস্ট মাসে কোভিড-১৯ সংক্রমণ কমে আসবে

বিস্তারিত