Daily Sunshine

গোদাগাড়ীর হরিশংকরপুরে ৪০ পরিবার পানিবন্দী

Share

প্রেমতলী প্রতিনিধি : রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের হরিশংকরপুর গ্রামের প্রায় ৪০ টি পরিবার কয়েক সপ্তাহ ধরে পানি বন্দী হয়ে মানবেতর দিন কাটাচ্ছেন। পানি নিষ্কাশনের জন্য কোন ব্যাবস্থা না থাকায় এ দুর্ভোগ সৃষ্টি হয়েছে। পানি বন্দি ভুক্তভোগি পরিবার গুলো উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার শুভ দৃষ্টি কামনা করেছেন।

এলাকাবাসী জানান, একটু বৃষ্টি হলেই বৃষ্টির পানিতে পানি বন্দি হয়ে পড়েন তারা। ঘরবাড়ীতে পানি ঢুকে যায়। পানি নিস্কাশনের কোন ব্যাবস্থা না থাকায় পানি বন্দি হয়ে দুর্ভোগের মধ্যে জীবন যাপন করতে হচ্ছে তাদের।

ভুক্তভোগি আবু কালাম জানায়, পানি নিস্কাশনের জন্য পাইপ লাইনের ব্যাবস্থা থাকলেও সংস্কারের অভাবে পাইপ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কয়েক বছর থেকে এ দুর্ভোগের কবলে পরতে হয় আমাদের গ্রামবাসীকে। স্থানিয় জনপ্রতিনিধিরা পানি নিস্কাশনের ব্যাপারে কোন ব্যাবস্থা গ্রহণ করে না।
সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য খাইরুল ইসলাম বলেন, আমি নিজেও পানি বন্দি।

 

তিনি বলেন আমি যখন ইউপি সদস্য ছিলাম তখন পানি নিস্কাশনের জন্য পাইপ বসিয়ে ছিলাম। প্রায় ৪ বছর ধরে পাইপ লাইনে কোন সংস্কার না হওয়ায় বৃষ্টির পানিতে পানি বন্দি হয়ে দুর্ভোগের কবলে পরতে হয়েছে ৪০ টি পরিবারকে।

এ ব্যাপারে মাটিকাটা ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান রুহুল আমিন নয়ন বলেন, পানি নিস্কাশনের জন্য ড্রেন ও কালভার্ট নির্মাণ না করা হলে গ্রামবাসীকে মানবেতর জীবনযাপন করতে হচ্ছে। ড্রেন ও কালভার্ট নির্মাণ করার জন্য বরাদের প্রয়োজন। ড্রেন ও কালভার্ট নির্মাণে বরাদের জন্য উর্দ্ধতন কতৃপক্ষের জোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।

সানশাইন/২৫ জুলাই/ রোজি

জুলাই ২৫
১৯:১০ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শীঘ্রই শেষ হচ্ছে করোনার প্রকোপ!

শীঘ্রই শেষ হচ্ছে করোনার প্রকোপ!

সানশাইন ডেস্ক : গোটা বিশ্বকে ভালোই ভুগিয়েছে ছোট্ট একটি জীবাণু। বিশ্বের নানা দেশ ও অঞ্চলে আধিপত্য বিস্তার করে এই ভাইরাস এখন অনেকটা সহনীয় হয়ে এসেছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের দাবি, এখন ৪০ শতাংশ মানুষ করোনা আক্রান্ত হলেও তাদের কোনো উপসর্গ প্রকাশ পাচ্ছে না। আর এতেই আশার কথা শোনাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এদিকে,

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সানশাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে সরকারি চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না হওয়ায় বেড়েছে চাকরিপ্রার্থীর সংখ্যা, সঙ্গে ফাঁকা পদের সংখ্যাও বাড়ছে। সরকারি চাকরিতে এখন তিন লাখ ৮৭ হাজার ৩৩৮টি পদ ফাঁকা পড়ে আছে, যা মোট পদের ২১ দশমিক ২৭ শতাংশ। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলছেন, অগাস্ট মাসে কোভিড-১৯ সংক্রমণ কমে আসবে

বিস্তারিত