Daily Sunshine

সাপাহারে বন্যার পূর্বাভাস

Share

সাপাহার প্রতিনিধি: উজানে ভারতের বিভিন্ন নদ নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নওগাঁর জেলার সাপাহার উপজেলার সীমান্তে কয়েকটি ইউনিয়নে বন্যার পূর্বাভাস দেখা দিয়েছে। গত কয়েক মাস ধরে একটানা বৃষ্টির ফলে উজানে ভারতের নদীগুলি হতে প্রবল বেগে স্রোতের পানি ভাটির দিকে নেমে আসায় হঠাৎকরে সাপাহার উপজেলার পাতাড়ী, শিরন্টি ও গোয়ালা ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকায় বন্যার পনি উঠতে শুরু করেছে।

ইতোমধ্যেই ওই সব এলাকার অনেক ফসলের মাঠ পানির নিচে তলিয়ে গেছে। কোথাও কোথাও বসতবাড়ীর আঙ্গিনায় পানি উঠতে দেখা গেছে। উপজেলার উত্তর পাতাড়ী, জালসুখা, কাউয়াভাসা, কলমুডাঙ্গা, হাপানিয়া সহ বেশ কিছু এলাকার গ্রামে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। বৃষ্টির পানি বৃদ্ধি হতে থাকলে ভবিষ্যতে ওই এলাকায় বন্যাপরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। বন্যাপরিস্থিতির সংবাদ জানতে পাতাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মুকুল মিয়ার সাথে কথা হলে তিনি জানান যে, বর্তমানে এলাকায় বন্যার ভয়াবহ চিত্র। ওই ইউনিয়নের সর্ববৃহত গ্রাম কলমুডাঙ্গার রাস্তায় এখনও বন্যার পানি উঠেনি তবে ছুঁই ছুই করছে। কিন্ত গ্রামের পূর্ব, পশ্চিম, এবং দিক্ষিন দিকের অনেক বসত বাড়ীতে ইতোমধ্যেই বন্যার পানি ঢুকে পড়েছে।

ওই সব এলাকার কম পক্ষে ৫০টি পরিবারকে তাদের বসত ভিটা ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে নেয়া হয়েছে। এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো: সোহরাব হোসেন এর সাথে কথা হলে তিনি জানান যে, আমরা সর্বত্রই বন্যার খোঁজ খবর রাখছি বন্যার পানিতে অনেক ফসলের মাঠ তলিয়ে গেলেও এখনও কোন গ্রামের বসতবাড়ীতে পানি উঠেনি তবে কোথাও কেউ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হলে তাৎক্ষনিক ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি দেখে বড় ধরণের বন্যার পূর্বাভাস মনে করা হচ্ছে।

সানশাইন/২৪ জুলাই/ রোজি

জুলাই ২৪
১৯:৫৯ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

রাজশাহীর রেশম শিল্পেও করোনার থাবা

রাজশাহীর রেশম শিল্পেও করোনার থাবা

স্টাফ রিপোর্টার : চলমান করনোকালে চরম অস্তিত্ব সংকটে রাজশাহীর রেশম শিল্প। বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে ধুঁকে ধুঁকে চলা এ শিল্পখাত আরো অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে। করোনা ভাইরাসের কারণে গত দুই মাসের লকডাউনে কোটি কোটি টাকার লোকসানে পড়েছে সিল্কের তৈরি পোশাকখাত। এখন সিল্কের তৈরি পোশাকের শো-রুম খোলা থাকলেও বেচাবিক্রি নেমে এসেছে

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সানশাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে সরকারি চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না হওয়ায় বেড়েছে চাকরিপ্রার্থীর সংখ্যা, সঙ্গে ফাঁকা পদের সংখ্যাও বাড়ছে। সরকারি চাকরিতে এখন তিন লাখ ৮৭ হাজার ৩৩৮টি পদ ফাঁকা পড়ে আছে, যা মোট পদের ২১ দশমিক ২৭ শতাংশ। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলছেন, অগাস্ট মাসে কোভিড-১৯ সংক্রমণ কমে আসবে

বিস্তারিত