Daily Sunshine

বাঘায় ১৫ দিনে ৬টি নারী নির্যাতন মামলা, লাপাত্তা কাউন্সিলর

Share

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা : রাজশাহীর বাঘা থানায় উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা। গত ১৫ দিনের ব্যবধানে এখনে এক প্রতিবন্ধীসহ তিন নারীকে ধর্ষন, দুই স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ এবং এক শিশুকে শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনার সবকটি মামলায় পুলিশ প্রধান আসামীকে আটক করার তথ্য নিশ্চিত করলেও অপহরণ মামলায় একজন পৌর কাউন্সিলরসহ অধিকাংশ মামলার অন্যান্য আসামীরা পলাতক রয়েছেন।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ দিনের ব্যাবধানে বাঘায় বেড়েছে নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা। এর মধ্যে কিছু ঘটনা স্থানীয় ভাবে মিমাংসা করা হয়েছে। আর কিছু ঘটনা নিয়ে থানায় মামলা করেছেন ভুক্তভুগিরা। এরমধ্যে একজন স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের ঘটনায় ছেলে অনিক হাসানকে (২২) সহায়তা করার অপরাধে ১৩ জুন দায়েরকৃত মামলায় জড়িয়ে পড়েছেন তার বাবা বাঘা পৌর সভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আসলাম হোসেনসহ আরো ৪ জন। এ মামলায় তাঁর ছেলে আটক হলেও কাউন্সিলর ও অন্যান্য আসামীরা লাপাত্তা রয়েছেন। ফলে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন ওই ওয়ার্ডের সাধারণ জনগণ।

এর আগে ২ জুন উপজেলার সোনাদহ্ এলাকা থেকে নবম শ্রেনী পড়া অপর এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করে একই এলাকার হোসেন আলীর ছেলে টিংকু (২৫)। তাকেও আটক করেছে পুলিশ। তবে এ মামলার অন্যান্য ৬ আসামী গ্রেফতার হয়নি। এদিকে গত ২৭ জুন বিয়ের প্রলোভনে উপজেলার ছাতারি গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে রমজান আলী(২৬) এর নামে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেন পলাশি ফতেপুর গ্রামের এক কলেজ ছাত্রী। এ মামলায় পুলিশ ওইদিন রাতে আসামী রমজানকে আটক করেন।

এর আগে ২৫ জুন উপজেলার মীরগঞ্জ এলাকায় এক প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণ করার অভিযোগে গ্রামবাসীদের হাতে আটক হয়ে পুলিশে সোপর্দ হন ওই এলাকার মৃত ইব্রাহিম প্রাং এর ছেলে সুকচাঁন আলী (৭০)। এ ঘটনায় প্রতিবন্ধীর আত্নীয় মাসুদ শেখ বাদি হয়ে বাঘা থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেন।

অপর দিকে গত ৩ জুলাই উপজেলার আলাইপুর গ্রামের আকরাম হোসেনের ছেলে রহিম(২৫)এর বিরুদ্ধে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেন ওই গ্রামের এক নারী। এ মামলায় ওই নারীকে বিয়ের কথা বলে রাত ৯ টায় বাড়ি থেকে ডেকে বাঁশবাগানে ধর্ষন করার কথা উল্লেখ করা হয়েছে দায়েরকৃত অভিযোগে।

সর্বশেষ ঘটনা ঘটেছে গত ২ জুলাই দুপুরে উপজেলার আশরাপপুর এলাকায়। ওইদিন তৃতীয় শ্রেনী পড়া এক ছাত্রী তার বাবার চায়ের দোকানে খাবার দিয়ে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় একই গ্রামের প্রতিবেশী নানা ওই ছাত্রীকে কাছে ডাকে। তখন সে ভয় পেয়ে রাস্তার পাশে এক বাড়ির মধ্যে প্রবেশ করার চেষ্টা করে। এ সময় নানা আসাদুল ইসলাম (৪৫) জোর করে তার নাতনির শ্লিলতাহানীর চেস্টা চালায়।এনিয়ে সন্ধ্যায় ওই ছাত্রীর মা থানায় মামলা করলে ওইদিন রাতে আসাদুলকে আটক করে পুলিশ।

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি)নজরুল ইসলাম বলেন, গত ১৫ দিনে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে যে ৬ টি মামলা হয়েছে তার সবকটি মামলার প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ছাড়াও উদ্ধার হয়েছে অপহৃত দুই নারী। আমরা অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছি।

সানশাইন/০৭ জুলাই/এমওআর

জুলাই ০৭
১৯:২৪ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

দুই নেতার শীতল যুদ্ধে বিএনপিতে বিভক্তি!

দুই নেতার শীতল যুদ্ধে বিএনপিতে বিভক্তি!

সানশাইন ডেস্ক : দলে প্রভাব বিস্তার, সিদ্ধান্ত গ্রহণে দ্বিমুখিতা, প্রাত্যহিক কার্যক্রমে সমন্বয়হীনতাসহ সাংগঠনিক দ্বন্দ্বে বিএনপিতে বিভক্তি সৃষ্টি হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নেতারা পরস্পরের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছেন শীতল যুদ্ধে। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নির্দেশ পাশ কাটিয়ে বিশেষ ক্ষমতাবলে সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ নিজের মতো করে দলের

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

বিশেষ বিসিএসে আরও দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ

বিশেষ বিসিএসে আরও দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ

সানশাইন ডেস্ক : সংকট মোকাবিলায় নতুন করে বিশেষ বিসিএসের মাধ্যমে আরও দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দিচ্ছে সরকার। এজন্য বিসিএস নিয়োগবিধি সংশোধন করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠাচ্ছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। পিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ক্যাডার) আ ই ম নেছার উদ্দিন সোমবার (২৭ জুলাই) বাংলানিউজকে এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, নতুন করে বিশেষ

বিস্তারিত