সর্বশেষ সংবাদ :

ভালাম-ভবাণীপুর স্কুলে ‘মানবতার দেয়াল’

স্টাফ রিপোর্টার : সমাজে ‘মানবতা’ নামের বিষয়টির বড়ই অভাব। মানুষের মাঝে আত্মিক সম্পর্কগুলো ধিরে ধিরে ছিন্ন হয়ে পড়ছে। আর এর প্রভাব পড়ছে সমাজে। চারিদিকে মানবতার সংকটের কারণে অরাজকতা ছড়িয়ে পড়েছে। তাই শিশুদের মাঝে মানবতার শিশু জরুরি হয়ে পড়েছে।
মানুষের বিপদে মানুষ পাশে দাঁড়াবে। মানুষকে ঘৃণা নয়, ভালোবাসতে হবে। অসহায়ের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িতে দিতে হবে। শিশুদের এমন ব্রত নিয়ে তৈরি করতে রাজশাহীর পবার ভালাম-ভবাণীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বিদ্যালয় প্রঙ্গণে তৈরি করেছেন মানবতার দেয়াল। এখানে বিদ্যালয়ের পড়া শিশুরা তাদের অপ্রোজনিয় কাপড়, জুতাসহ অন্য জিনিস রেখে যাবে। আর যাদের প্রয়োজন তারা সেখান থেকে নিয়ে যাবে।
শনিবার এ মানবতার দেয়াল উদ্বোধন করেন, বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক আনিছুর রহমান। সঙ্গে ছিলেন, জমিদাতা আবুল কালাম, নওহাটা ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক ও বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র মোহা. আলমগীর, ভালাম উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছাদেক।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ভালাম ভবাণীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নফুরা খাতুন, বরকতুল্লাহ, মাহমুদা খাতুন, লতিফুর রহমান, ইনতাজ আলী, আসমা খাতুনসহ কোমলমতি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ।
এ সময় প্রধান শিক্ষক আনিছুর রহমান বলেন, শিক্ষা মানুষকে নতুন পথ দেখায় ও মানবতার দরজা খুলে দেয়। তাই মানুষের মন জাগ্রত না হলে সমাজে পরিবর্তন আনা যায় না। এ কারণে মানুষকে সবার আগে মানুষ হতে হবে। আর সেই শিক্ষাটা ছোটবেলা থেকে শুরু হওয়াটা জরুরি। শিশুদের ভেতরে মানবতা জাগ্রত করার প্রায়াস থেকেই এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।


প্রকাশিত: জুলাই ২৮, ২০১৯ | সময়: ৪:১৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ