Daily Sunshine

শিবচর উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ বন্ধ

Share

এস.এম.দেলোয়ার হোসাইন, মাদারীপুর: শিবচর উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে এক বাল্যবিবাহ বন্ধ হয়ে গেছে। এসময় ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৮ মে) বেলা ৩ টার দিকে শিবচর উপজেলার সহকারী কমিশনার( ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট এম রাকিবুল হাসান সঙ্গীয় পুলিশের একটি দল নিয়ে বাল্য বিবাহটি বন্ধ করেন।

শিবচর উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা যায়,দুপুরে উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের চর বাচামারা (সিকদারকান্দি)গ্রামের তোতা শেখের বাড়িতে এ অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়ের সাথে পার্শ্ববর্তী ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার নুরপুর এলাকার হাসমত আলী বেপারীর পুত্র নুর হোসেন (২৩) এর সাথে বিয়ে দেওয়ার সব আয়োজন করে মেয়েটির পরিবার। এরই মধ্যে শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামানের কাছে খবর আসে বাল্যবিবাহের প্রস্তুতির। পরে নির্বাহী কর্মকর্তা শিবচর উপজেলার সহকারী কমিশনার( ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এম রাকিবুল হাসান, উপজেলার মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হামিদা খানম ও শিবচর থানা পুলিশের একটি দলসহ সেখানে পাঠান। পরে শিবচর উপজেলার সহকারী কমিশনার( ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট তাৎক্ষণিক বাল্য বিবাহটি বন্ধ করেন।একই সময় মেয়ের বাবাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।এছাড়াও ওই মেয়েটি প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ না দেওয়ার জন্য বাবার কাছ থেকে মুচলেকা নেন।

উপজেলার মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হামিদা খানম বলেন, আজ দুপুরে আমরা জানতে পারি ওই এলাকায় অপ্রাপ্তবয়স্ক একজন মেয়েকে বিয়ে দেওয়া হচ্ছে।আমরা যেটার সততা পাই সেটা হচ্ছে মেয়েটির এখনো প্রাপ্ত বয়স্ক হয়নি। আমরা গিয়ে বিয়েটি বন্ধ করি। একই সাথে মেয়ের বাবাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়েছে।এছাড়াও প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ না দেওয়ার জন্য মেয়ের বাবার কাছ থেকে মুচলেকা নেই ও তাদের বাল্য বিবাহের কুফল সম্পর্কে সচেতন করি।

মে ২৮
১৮:২৩ ২০২১

আরও খবর