Daily Sunshine

মদপানে রাবির দুই শিক্ষার্থীসহ রাশিয়ান প্রকৌশলীর মৃত্যু

Share

স্টাফ রিপোর্টার :
মদপানের পৃথক ঘটনায় রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত প্রকল্পের রাশিয়ার প্রকৌশলী ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীসহ মোট তিনজন মারা গেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় আরো দুই রাশিয়ানকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহীর সিডিএমএ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মদপানে মৃত রাশিয়ান নাগরিক হলেন ঈশ্বর্দী রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের প্রকৌশলী বেলি দিমেত্রি (৪১)। একই ঘটনায় চিকিৎসাধীন রাশিয়ান নাগরিকরা হলেন মিশা (৪০) ও লেবা (৪৫)। শনিবার গভীর রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের রাশিয়ান এই তিন কর্মকর্তাকে মদ্যম ও আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি করা হয়। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা বেলি দিমেত্রিকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুজন শিক্ষিার্থী শনিবার রাতে মুন্নফের মোড়ের একটি মেসে মদপান করে অসুস্থ হয়ে পড়লে, তাদের রাজাশাহী মেডিকেল কলেজে নিয়ে আসা হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিংসকেরা তাদের মৃত বলে ঘোষণা করেন।

মদপানে রাবির মৃত শিক্ষার্থীরা হলেন, আইন বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র ও খুলনার দৈৗলতপুর থানার কবির আলম খানের ছেলে মুহতাসিম রাফি খান ও অর্থনীতি বিভাগের ১ম বর্ষের ছাত্র ও নীলফামারি জেলার ডেমরারর ছোট রাউতরা গ্রামের পুনেন্দ্র রায়ের ছেলে তুর্য রায়। এদের মধ্যে মুহতাসিম ছালছাবিল মেসে ও তুর্য সাইদ টাওয়ারের মেসে থাকতেন বলে জানা গেছে।

রাবির সহকারী প্রক্টর হুমায়ুন কবীর জানান, নগরীর মুন্নাফের মোড় এলাকায় ছাত্রাবাসে তারা মদ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেয়ার পর ভোরে তাদের মৃত্যু হয়। তাদের সাথে মদ খেয়ে রুয়েটের আরেক ছাত্র অসুস্থ হয়েছেন বলেও জানান তিনি।

রাজশাহী মহাগর পুলিশের মুখপাত্র ইফতে খায়ের আলম জানান, রাবির দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর বিষয়ে নিয়ে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। কারণ তারা দুজনে পৃথক মেসে থাকতো। তারা একত্রে মাদক নিয়েছে নাকি এর সাথে অন্য কোন বিষয় জড়িত আছে এটি তদন্তের বিষয়।

তিনি আরো জানান, রাশিয়ান নাগরিকটির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। তারা এলকোহল সেবন করেছিলেন। তিনজনের মধ্যে একজন মারা গেছেন ও দুই জন এখনো রাজশাহীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। আরএমপির তরফ থেকে তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে।

এপ্রিল ০৭
১০:৪৫ ২০১৯

আরও খবর