সর্বশেষ সংবাদ :

যুক্তরাষ্ট্রে বজ্রঝড়ে নিহত ১৮

সানশাইন ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চীয় সমভূমি ও ওজার্কস নামে পরিচিত অঞ্চলের চারটি অঙ্গরাজ্যে টর্নেডো ও বজ্রঝড়ে চারটি শিশুসহ অন্তত ১৮ জন নিহত হয়েছেন।
শনিবার রাতভর ও রোববার সারাদিন ধরে তাণ্ডবের পরও ওই অঞ্চলগুলোতে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া বিরাজ করতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে। দেশটির স্টর্ম প্রেডিকশন সেন্টার সতর্ক করে বলেছে, “এসব অঞ্চলে অতি শক্তিশালী টর্নেডো, ব্যাপক শিলাবৃষ্টি এবং প্রবল ঝড়ে বিস্তৃত ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে।” বিশাল এ অঞ্চলের ১০ কোটি ৯০ লাখ বাসিন্দা এসব পরিস্থিতির হুমকির মুখে আছে বলে জানিয়েছে তারা।
এসব ঝড়ের বিষয়টি প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে অবহিত করা হয়েছে বলে খবর সিএনএনের। শনিবার রাতে টেক্সাসের কুক কাউন্টিতে প্রবল ঝড়ে অন্তত সাতজনের মৃত্যু হয়েছে, সিএনএনকে জানিয়েছেন শেরিফ রে স্যাপিংটন। নিহতদের মধ্যে দুইজনের বয়স দুই ও পাঁচ বছর। রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে গর্ভনর গ্রেগ অ্যাবট জানিয়েছেন, এখানে ঝড়ে প্রায় ১০০ জন আহত হয়েছেন।
কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ঝড়ে আরক্যানসতে অন্তত আটজন নিহত হয়েছেন। গভর্নর সারা হাকাবি স্যান্ডার্স রোববার বিকালে অঙ্গরাজ্যের যে অংশটি টর্নেডো ও বিরূপ আবহাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেখানে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। লুইভেলের মেয়র ক্রেগ গ্রিনবার্গ জানিয়েছেন, ঝড়ে কেনটাকিতে একজনের মৃত্যু হয়েছে।
ওকলাহোমার স্থানীয় কর্মকর্তারা সিএনএনকে জানিয়েছেন, শনিবার রাতে প্রবল ঝড়ে অঙ্গরাজ্যের উত্তরপূর্বাঞ্চলে দুই জন নিহত ও অন্তত ২৩ জন আহত হয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আবহাওয়া পরিষেবার জরিপকারী দলগুলো রোববার ওকলাহোমার উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় শহর ক্লেয়ারমোরে ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দেখতে পান।
শেরিফ স্যাপিংটন জানিয়েছেন, টেক্সাসের উত্তরপূর্বাঞ্চলে একটি পেট্রল পাম্পে ঝড়ের মধ্যে ৬০ থেকে ৮০ জন মানুষ আটকা পড়েছিলেন, পরে ঝড় থামলে তারা তারা সরে যেতে সক্ষম হন। কিন্তু ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন আহত হন, তবে তাদের আঘাত গুরুতর নয়। যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চলের সমভূমি ও মধ্যাঞ্চলের অবস্থান এবং আবহাওয়াজনিত কারণে সেখানে প্রতি বছরের মে মাসেই শক্তিশালী টর্নেডো দেখা দেয়।


প্রকাশিত: মে ২৮, ২০২৪ | সময়: ৪:৩২ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ