সর্বশেষ সংবাদ :

নগরীতে ভুয়া জমি রেজিস্ট্রি বাতিলের দাবিতে ছেলের বিরুদ্ধে মায়ের মামলা

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে ছেলের বিরুদ্ধে জমি রেজিস্ট্রি করে নেওয়ার অভিযোগ করেছেন এক মা। ঘটনাটি ঘটেছে নগরীর আরএমপি থানা এলাকার মহিষবাথান পূর্বপাড়ায়। এব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে জেলা রাজশাহীর বিজ্ঞ সদর সিনিঃ সহঃ জজ আদালতে ছেলেকে আসামী করে মামলা করেন তার মা।
মামলাসূত্রে জানা যায়, মৃত আলহাজ্ব মনির উদ্দিন আহমেদ তার স্ত্রী এবং এই মামলার বাদী তসলিমা আহমেদ-কে ১৯৭৭ সালে নগরীর মহিষবাথান মৌজায় আরএস খতিয়ান ১৫৩ এবং দাগ নং ৭২৯ এ প্রায় ৫ কাঠা জমি বিক্রয় কবলা মুলে ৩৬৩ হোল্ডিংএ রেজিস্ট্রি দেন। তসলিমা আহমেদ যথারীতি নামজারি করে খাজনা পরিশোধ করে আসছেন। ওই জমিতে পাকা বাড়ি নির্মাণ করে এক ছেলে তাজউদ্দিন আহমেদ (মিল্টন) ও দুই মেয়ে মনিরা হোসেন মুক্তি ও মহুয়া আক্তারকে নিয়ে বসবাস করে আসছেন। ওই বাড়ি থেকেই মেয়ে মনিরা হোসেন মুক্তি ও মহুয়া আক্তারের বিয়ে হয়। মেয়েরা স্বামীর বাড়িতে তাদের ঘরসংসার করতে থাকেন। মাঝে মধ্যে মায়ের সাথে দেখা সাক্ষাৎ করতে আসেন এই বাড়িতে।
এমতাবস্থায় গত বছর ২০২৩ সালের ৫ মে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে মা তসলিমা আহমেদের সাথে ছেলে তাজউদ্দিন আহমেদ (মিল্টন)-এর স্ত্রীর ঝগড়া হয়। তসলিমা আহমেদকে বাজে কথাসহ অশ্লিল ভাষায় গালি গালাজ করে তাজউদ্দিন আহমেদ (মিল্টন)-এর স্ত্রী। তসলিমা আহমেদকে ছেলে ও তার স্ত্রী বাড়ি থেকে চলে যেতে বলেন। এমনকি তারা মা-কে বলেন মেয়ে ও জামাই কেহ যেন এই বাড়িতে না আসে। পাশাপাশি তারা এই সম্পত্তি ছেলেকে দান করেছেন বলে জানান। পাশাপাশি এর দলিলের ফটোকপি দেখান। এতে মা তসলিমা আহমেদ মর্মাহত হন এবং এর সত্যতা যাচাইয়ে দলিলের জাবেদা কপি তোলেন। ছেলে তাজউদ্দিন আহমেদ (মিল্টন) যে ভুয়া মা সাজিয়ে বোনদের বঞ্চিত করে নিজের নামে জমি রেজিস্ট্রি করেছেন তা জানতে ও বুঝতে পারেন।
এরপর প্রতিকার চেয়ে জেলা রাজশাহীর বিজ্ঞ সদর সিনিঃ সহঃ জজ আদালতে ছেলে তাজউদ্দিন আহমেদ (মিল্টন) কে আসামী করে একদিকে জমি ফেরত এবং অন্যদিকে এ অপকর্মের জন্য শাস্তির দাবিতে মামলা করেন তার মা তসলিমা আহমেদ।
এব্যাপারে অভিযুক্ত তাজউদ্দিন আহমেদ (মিল্টন) বলেন, মা নিজেই আমাকে জমি দান করেছেন। এখন বোনদের চাপে পড়ে এমন অভিযোগ দিয়েছে।


প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২৪ | সময়: ৪:২৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর