বাড়ি-বাড়ি খাবার পানি পৌঁছে দিচ্ছেন শাহরিয়ারের কর্মীরা

নুরুজ্জামান, বাঘা: খরায় পুড়ছে দেশ। সাথে তপ্ত বাতাস। একটু পানির জন্য হাহাকার করছে মানুষ। স্বস্তি নেই সকল প্রাণীকূলে। এই অবস্থায় নিজ অর্থায়নে একজন মানুষ পানি সরবরাহ সহ গভীর নলকূপ বসিয়ে দিচ্ছেন তার নির্বাচনী এলাকায়। তিনি আর কেউ নন, তিনি হলেন রাজশাহীর চারঘাট-বাঘা থেকে চরবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও দুই বারের সফল পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তার পাঠানো পানি পেয়ে স্বস্তির নিশ্বাস ফেলছেন অনেকে।
সরেজমিন লক্ষ করা গেছে, বর্তমানে রাজশাহীর পূর্ব দক্ষিণ সীমানায় অবস্থিত চারঘাট-বাঘার পদ্মা নদী শুকিয়ে খা-খা করছে। অন্য শাখা নদী আড়ানী বড়াল এবং পদ্মার অপর একটি অংশ মুশিদপুর হয়ে ঈশ্বরদী যাওয়ার যে নদী সেটিও একেবারেই মৃত। বর্তমানে খাল-বিল সহ প্রায় নদীতেও মাছের বদলে চাষ হচ্ছে ধান-গম-ভুট্টার মতো ফসল! একদিকে নদীতে পানি নেই, অন্যদিকে বরেন্দ্র অঞ্চল সহ সমতল এলাকার প্রতিটি গ্রামে পানির স্তর ক্রমশই নিচে নামছে। এতে করে মানুষের মাঝে শুরু হয়েছে পানির জন্য হাহাকার।
আর এই হাহাকার প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যকে বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে ডিজিটাল সেবা নিশ্চিত করার লক্ষে ব্যাক্তিগত পরিকল্পনায় চারঘাট-বাঘাবাসীর ভোগান্তি কমাতে গভির নলকূপ বসানো সহ বড়-বড় ভ্যান যোগে মানুষের বাড়ি-বাড়ি পানি পৌছে দিচ্ছেন সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তিনি এবছর সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর প্রথম সংসদ অধিবেশনে তার এলাকার সমস্যা হিসাবে পানি সংকোটের কথা তুলে ধরেন।
অপরদিকে সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তার নিজেস্ব আইডি সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লিখে ছিলেন ‘বাঘা-চারঘাট এলাকায় পানি পেতে সমস্যা হচ্ছে মানুষের। এরপর ও অতিরিক্ত পুকুর খনন করে গভীর নলকূপ বসিয়ে পুকুরে পানি ভরা হচ্ছে। এলাকায় পানিরস্তর দ্রুত নেমে যাওয়ার এটা বড় কারণ বলেও তিনি মন্তব্য করেন। তার এই পোস্ট দেখে অনেকেই তাদের নিজ-নিজ এলাকায় পানি সংকটের কথা তুলে ধরেন।
বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল বলেন, সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম একজন মানবতার ফেরিওয়ালা। সোমবার সারাদিন তার পাঠানো ট্যাংকিতে করে গ্রামে-গ্রামে পানি সরবরাহ করেছেন দলীয় নেতা কর্মীরা। এর অংশ হিসাবে দিনে প্রায় এক লক্ষ লিটার খাবার পানি সরবরাহ করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, তীব্র গরম না কমা পর্যন্ত এই কার্যকম চলমান থাকবে। শাহরিয়ার আলমের পাঠানো পানি পেয়ে অসংখ্য মানুষ হাত তুলে তাঁর জন্য দোয়া করেছেন। আবার অনেকেই বলেছেন, পানির অপর নাম জীবন। যে ব্যক্তি পানি দিয়ে মানুষের জীবন বাঁচায় সৃষ্টি কর্তা যেন তাঁকে ভাল রাখেন।


প্রকাশিত: মে ১, ২০২৪ | সময়: ৪:০৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ