সর্বশেষ সংবাদ :

পুঠিয়ায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগ প্রার্থী হাফ-ডজন 

পুঠিয়া প্রতিনিধি :
রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা নির্বাচনের ক্ষণগণনা শুরু হয়েছে। ষষ্ঠ উপজেলা নির্বাচন কয়েক ধাপে হবে। ইতোমধ্যে পুঠিয়া উপজেলায় চলছে নির্বাচনি উত্তাপ। সমর্থন চেয়ে সম্ভব্য প্রার্থীরা পোস্টার-ফেস্টুন সাঁটিয়েছেন। তবে এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের (হাফ-ডজন) প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে আভাস পাওয়া গেছে। এবারের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজশাহীর পুঠিয়ায় আসনে নৌকা ও ঈগল প্রার্থীর মধ্যে ভোটের প্রতিদ্বন্দ্বিতা হওয়ায় সৃষ্টি হয়েছে নানা বিভেদ। এ কারণে উপজেলায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীরা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন।

 

পুঠিয়া উপজেলার বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জিএম হীরা বা”চু এবারও নির্বাচন করতে আগ্রহী। তিনি ছাড়া এখানে সম্ভাব্য প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সামাদ, বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন মুকুল, জেলা পরিষদের বর্তমান সদস্য আসাদুজ্জামান মাসুদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক এবং শিলমাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন মুকুল।

 

তাই উপজেলায় চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সমর্থনের জন্য জোর তদবির চালা”েছন। এর মধ্যে অনেক চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদের প্রার্থী সংসদ নির্বাচনে এমপিদের বিরোধিতা করলেও বর্তমানে এমপি আব্দুল ওয়াদুদ দারার প্রিয়ভাজন হওয়ার চেষ্টা করছেন। আবার কেউ কেউ দলের হাইকমান্ডকে ম্যানেজ করার চেষ্টা চালাচ্ছেন।

 

 

তবে সম্প্রতি দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম কার্যনির্বাহী কমিটিতে সিদ্ধান্ত হয়েছে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রতীক থাকবে না। ফলে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়টি উন্মুক্ত হয়ে পড়েছে। এতে প্রার্থীর সংখ্যাও যেমন বাড়বে তেমনি বিভক্তিও বাড়বে বলে মনে করছেন ভোটাররা।

 

অপরদিকে ২০১৮ সালের সংসদ নির্বাচনের পর থেকে আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে না বিএনপি। ফলে নির্বাচনের মাঠে আলোচনায় নেই স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা। এ কারণে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিতে উপজেলায় চেয়ারম্যান এবং ভাইস চেয়ারম্যান (নারী ও পুরুষ) পদে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী এবং তাদের সমর্থকরাই। তবে বিএনপির নেতা প্রার্থী হওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন। তারা দলের হাইকমান্ডের আনুষ্ঠানিক নির্দেশের অপেক্ষায় আছেন।

 

বর্তমানে পুঠিয়া উপজেলায় নির্বাচনি দৌড়-ঝাপ শুরু হয়েছে। তারা স্থানীয় নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়ও করছেন। সম্ভাব্য প্রার্থী, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে কথা বলে একটি চিত্র উঠে এসেছে।

সানশাইন / শামি


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৪ | সময়: ৯:১৯ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine

আরও খবর