সর্বশেষ সংবাদ :

মহাদেবপুরে নারীর গলাকাটা লা*শ বাথরুম থেকে উদ্ধার

মহাদেবপুর প্রতিনিধি ঃ

মহাদেবপুরে স্বামী পরিত্যক্তা গৃহবধুর গলাকাটা লাশ বাবার বাড়ীর বাথরুম থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ৬ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার সকালে উপজেলা সদরের মডেল স্কুল মোড় এলাকার মৃত নাসির উদ্দিনের বাড়ীর বাথরুম থেকে নারগিস (৪২)’র গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

 

জানা গেছে গত ৫ বছর আগে মৃত নাসির উদ্দিনের একমাত্র শিক্ষিত কন্যা নারগিসের বিয়ে হয় মহাদেবপুরের বিশিষ্ট স্বর্ণ ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেনের সাথে। স্বামীর সাথে বণিবনা না হওয়ায় অল্প কিছুদিন আগে উভয়ের মধ্যে তালাক হয়। এরপর থেকেই নারগিস তার বিধবা মা মেরিনা বেওয়ার সাথে উল্লেখিত এলাকার বাড়ীতে বসবাস করতেন। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৬টার সময় তার মা বিছানায় না পেয়ে বাথরুমে গিয়ে দেখে তার মেয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। এ সময় সে বাড়ীর দরজা খুলে লোকজনকে ডাকাডাকি করে। পুলিশ খবর পেয়ে সকাল ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে নারগিসের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ মর্গে প্রেরণ করে। এ সময় পুলিশ নারগিসের ব্যাবহৃত মোবাইল ফোন পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য থানায় নিয়ে যায়।

 

উল্লেখ্য যে, নারগিসের বড় ২ জমজ ভাই বিশিষ্ট চাউল ব্যবসায়ী বকুল রাজশাহীর উপ-শহরে এবং অপর ভাই মিজানুর রহমান গোকুল বিজিবি সদস্য পার্বত্য চট্রগ্রামে থাকেন। মা মেরিনা বেওয়ার দাবী তার মেয়ে আগে থেকেই মানসিক রোগী ছিলেন এবং একবার আত্মহত্যার জন্য হারপিক খেয়েছিলেন। আজও সে বটি দিয়ে নিজের গলা নিজেই কেটে আত্মহত্যা করেছে।

সানশাইন / শামি


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪ | সময়: ৭:৩৫ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine