প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতি, ১৪ জনের কারাদণ্ড

সানশাইন ডেস্ক: নওগাঁয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে ১৪ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। জরিমানা করা হয়েছে দুজনকে। শুক্রবার সকালে পরীক্ষা চলাকালে তাদের আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এ দণ্ড দেওয়া হয়। পরে বিকেলে মিডিয়া সেলে এতথ্য জানান জেলা প্রশাসক গোলাম মওলা।
জেলা প্রশাসন জানান, নিয়োগ পরীক্ষা চলাকালে মান্দা উপজেলার মমিন শাহানা সরকারি ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে তিনজন চাকরিপ্রত্যাশীর কাছে ইলেকট্রনিক ডিভাইস পাওয়া যায়। এ অপরাধে মিঠুনকে একমাস, সুলতানকে একমাস এবং রবিউল ইসলামকে ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। একই উপজেলার শহীদ কামারুজ্জামান টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট কেন্দ্র থেকে আটক নাইমুর রহমান ও মোস্তাফিজুর বিন আমিনকে ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।
মান্দা থানা আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে আরও পাঁচজনকে আটক করা হয়। সেখানে জারজিস আলমকে ১০ দিন, ফজলে রাব্বি মণ্ডলকে একমাস, নুর আলমকে সাতদিন, জামাল উদ্দিনকে ১০ দিন এবং আব্দুল্লাহ সাইরাফিকে ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
নওগাঁ সদর উপজেলার বশির উদ্দিন মেমোরিয়াল কলেজ (বিএমসি) কেন্দ্রে দুজনকে ৫০০ টাকা করে মোট এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া সদর উপজেলার চকএনায়েত উচ্চ বিদ্যালয় এবং পাহাড়পুর জি এম হাইস্কুল কেন্দ্রের একজন করে মোট দুজনকে ১০ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। মহাদেবপুর উপজেলায় একজনকে আটক করে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বদলগাছী উপজেলার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে একজনকে আটক করে পুলিশে দিয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৪ | সময়: ৫:৫১ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ