সর্বশেষ সংবাদ :

জয়রথ ছুটছেই খুলনার, প্রথমে ব্যাট করেও জিতলো বিপিএলে

স্পোর্টস ডেস্ক: বিপিএলে টস জয় মানেই ম্যাচ জয়- এটা প্রতিষ্ঠিত সত্যে রূপ নিতে যাচ্ছিলো। অন্তত এবারের বিপিএলে ঢাকা পর্বে যতগুলো ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে, সবগুলোতেই জয় পেয়েছে টস জিতে ফিল্ডিং নেয়া দলগুলো।
কিন্তু এই প্রথম বিপিএলে জয় পেয়েছে প্রথমে ব্যাট করা খুলনা টাইগার্স। রংপুর রাইডার্সকে তারা হারিয়েছে ২৮ রানের ব্যবধানে। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬০ রান সংগ্রহ করেছিলো খুলনা। জবাব দিতে নেমে ১৮.৪ ওভারে অলআউট হয়ে যায় রংপুর। টানা তিন ম্যাচে জয় পেলো এনামুল হক বিজয়ের দল। তিন জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে রয়েছে তারা।
টস জিতলেই ম্যাচ জয়, এই অমোঘ নীতি থেকে বের হতে পারেননি রংপুর অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান। যে কারণে টস জিতে রান তাড়া করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে তিন বিদেশী ক্যারিবীয় এভিন লুইস, শ্রীলঙ্কান দাসুন শানাকা এবং পাকিস্তানি মোহাম্মদ নওয়াজের ব্যাটে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬০ রান সংগ্রহ করে খুলনা।
জবাব দিতে নেমে শুরু থেকেই ধ্বস নামে রংপুরের ইনিংসে। বিশেষ করে দলটির পাওয়ার হাউজ বাবর আজম এবং ব্রেন্ডন কিং দাঁড়াতেই পারেননি। বাবর আউট হন ২ রানে, ব্রেন্ডন কিং আউট হন ১ রান করে। ১১ রানে ২ উইকেট হারানোর পর রনি তালুকদার এবং শামীম হোসেন পাটোয়ারী মিলে ৩৮ রানের জুটি গড়ে তোলেন। ১৫ রান করে আউট হন রনি তালুকদার। ২২ বলে শামীম হোসেন পাটোয়ারী ৩০ রানের হালকা ঝোড়ো ইনিংস খেলে আউট হয়ে যান।
আফগান ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবি একাই খুলনার বোলারদের বিপক্ষে লড়াই করলেন। ৩০ বলে তিনি খেললেন ৫০ রানের ইনিংস। ৪টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৩টি ছক্কার মার মারেন তিনি। আজমতউল্লাহ ওমরজাই ৪ রান করেন, নুরুল হাসান সোহান রানআউট হন ১ রানে। সাকিব আল হাসান ৪ বলে ২ রান করে আউট হয়ে যান। মেহেদী হাসান ৮ বলে করেন ১২ রান। রিপন মন্ডল ৩ বলে ৮ রান করে শেষ ব্যাটার হিসেবে উইকেট দিয়ে আসেন। ব্যাট হাতে ঝড় তোলার পর বল হাতেও বিধ্বংসী ছিলেন লঙ্কান ক্রিকেটার দাসুন শানাকা। ৩ ওভারে ১৬ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন তিনি। ম্যাচ সেরার পুরস্কারও ওঠে তার হাতে।


প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৭, ২০২৪ | সময়: ৩:৪৫ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর