পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর আসনে আবারো স্বতন্ত্র প্রার্থী হচ্ছেন আ’লীগ নেতা রায়হান

নুরুজ্জামান,বাঘা :
আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজশাহী-৬ চারঘাট-বাঘায় বুধবার(২৯ নভেম্বর) পর্যন্ত তৃণমুল বিএনপি (বি.এন.এম) সহ মোট ৬ জন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম উত্তোলন করেছেন। এর মধ্যে দ্বিতীয়বার নৌকার বিরুদ্ধে (বিদ্রোহী)প্রার্থী হয়েছেন আ’লীগ নেতা রায়হানুল হক রায়হান। তিনি এ বছর দলীয় ফরম ক্রয় করে ছিলেন। শেষ পর্যন্ত হ্যাবী ওয়েটধারী প্রার্থী ও পরপর তিনবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও দুই বারের সফল পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সাথে টিকতে না পেরে আবারও সতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনী প্রচারনায় নেমেছেন। তাঁর এই প্রচারনাকে নেতিবাচক হিসাবে মন্তব্য করেছেন দলের নেতা-কর্মী সহ সাধারণ জনগণ ।
বাঘা উপজেলা সহকারি রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতার জানান, মনোনয়ন উত্তোলন ও জমাদেয়ার জন্য আর মাত্র একদিন সময় বাঁকি রয়েছে। এদিক থেকে বুধবার বিকেল পর্যন্ত রাজশাহী (৬)চারঘাট-বাঘায় মনোনয়ন উত্তোলন করেছেন মোট ৬ জন প্রার্থী ।এদের মধ্যে সতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন দু’জন। এরা হলেন চারঘাট উপজেলার বাসিন্দা ও আ’লীগ নেতা রায়হানুল হক রায়হান এবং বাঘার ইসরাফিল হোসেন।

 

 

 

অপর দিকে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে যারা দলীয় মনোনয়ন ফরম উত্তোলন করেছে তাদের মধ্যে রয়েছেন একাটানা তৃতীয় বার আ’লীগ নির্বাচিত সংসদ সদস্য এবং বর্তমান সরকারের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ শাহরিয়ার আলম। জাতীয় পার্টি থেকে শামসুদ্দিন রিন্টু, জাকের পার্টি থেকে রিপন আলী ও তৃণমুল বিএনপি (বি.এন.এম) থেকে আব্দুস সামাদ।
বাঘা উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল ও বাঘা পৌর সভার সাবেক প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু সহ অনেকেই জানান, রায়হানুল হক রায়হান এ বছর নৌকার প্রার্থী হওয়ার জন্য দলীয় ফরম উত্তোলন করেছিলেন। অত:পর মনোনয়ন না পাওয়ার কারনে তিনি চারঘাট নির্বাচন অফিস থেকে সতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন ফরম উত্তোলন করেছেন। তার সাথে রয়েছে বাঘার দুই নেতা। এর মধ্যে ২০০০ সালের উপ-নির্বাচনে আ’লীগ থেকে বিজয়ী সাবেক সংসদ রায়হানুল হকের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী (কুলা প্রতিক) নিয়ে প্রার্থী হওয়া পরাজিত বাঘার সেই বিতর্কিত নেতা আক্কাছ আলী এবার রায়হানুল হকের সাথে হাত মিলিয়ে প্রচারনায় নেমেছেন। তবে তাতে কোন লাভ হবে না। শহারিয়ার আলমের দৃশ্যমান উন্নয়ন মানুষের মুখে-মুখে ফিরছে। অত্র অঞ্চলের মানুষ অবারও তাঁকের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন।

 

 

 

এদিকে চারঘাট উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকরুর ইসলাম বলেন, রায়হানুল হক রায়হান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেন। তবে স্বার্থে আঘাত হানলে তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী হন। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সাথে নৌকার বিপক্ষে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে (প্রজাপতি মার্কায়) অনেক বড় রকমের ডিগবাজি খান রায়হান। তার পরেও তার ভোট করার নেশা যাচ্ছে না। তবে এবার এলাকার মানুষ তাকে দেখে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন।
এ বিষয়ে রায়হানুল হকের সাথে মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তাঁর এক কর্মী জানান, এবার বাংলাদেশ জাতিয়তাবাদী দল বিএনপি ভোট বর্জন করছে। তারা যদি ভোট কেন্দ্র যাই তাহলে একটা হিসাব-নিকাশ রয়েছে। এ কারণে আমাদের নেতা আবাও সতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।

সানশাইন/সোহরাব


প্রকাশিত: নভেম্বর ২৯, ২০২৩ | সময়: ৮:৩৩ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine

আরও খবর