সর্বশেষ সংবাদ :

উদ্ধার করলো পুলিশ : কেশরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফের অবরুদ্ধ

কেশরহাট প্রতিনিধি: রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামকে ফের অবরুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। রবিবার দুপুরে কেশরহাট বাজার অগ্রনী ব্যাংক রায়ঘাটি শাখায় এই অবরুদ্ধের ঘটনাটি ঘটে। প্রায় তিনঘণ্টা অবরুদ্ধ থাকার পর থানা পুলিশ এসে প্রধান শিক্ষককে উদ্ধার করেন।
সরেজমিনে জানা গেছে, কেশরহাট উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের উন্নয়নে সরকারের বিশেষ বরাদ্দ দেয়া হয়। এছাড়াও ব্যাংক একাউন্টে উদ্বৃত আরো ৯৩ হাজার টাকা জমা ছিলো। বরাদ্দের ৫ লাখ টাকা উচ্চবিদ্যালয়ের ব্যাংক একাউন্টে জমা হলে তা চেকের মাধ্যমে তুলতে গেলে এ অবরুদ্ধের ঘটনা ঘটে। তবে প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম বলেন, নিয়ম মেনে টাকা উত্তোলন করা হচ্ছে। কিন্তু ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি রুস্তম আলী প্রামাণিক বলেন, অনিয়ম করে টাকা তুলা হচ্ছে। একারণে সাধারণ জনগন প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে।
স্থানীয় কাউন্সিলর আসলাম হোসেন বলেন, উচ্চবিদ্যালয়ের টাকা প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম তুলতে গিয়ে অবরুদ্ধের ঘটনা ঘটে। প্রধান শিক্ষক অনিয়ম করে টাকা তুলছিলেন বলে জেনেছি।
মোহনপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইব্রাহিম খলিলুল্লাহ বলেন, প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধের ঘটনার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে এসে প্রধান শিক্ষককে উদ্ধার করে বাসায় পাঠায়। পাশাপাশি স্থানীয়দের শান্ত থাকতে বলা হয়েছে।
উল্লেখ্য, এর আগে প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামকে তার কক্ষে অবরুদ্ধ করেন এলাকাবাসী।


প্রকাশিত: অক্টোবর ২, ২০২৩ | সময়: ৬:৪২ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ