সর্বশেষ সংবাদ :

পদ্মা সেতুতে ১২০ কিলোমিটার গতিতে ছুটল ট্রেন

সানশাইন ডেস্ক: ফরিদপুরের ভাঙ্গা থেকে পদ্মা সেতু পার হয়ে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্ত পর্যন্ত গতি পরীক্ষা করেছে স্পেশাল ট্রায়াল ট্রেন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টা ও সকাল ১০টা ১০ মিনিটে দুইবার এ গতি পরীক্ষা সম্পন্ন করে ট্রেনটি।
এটিই প্রথম পদ্মা সেতু পার হয়ে যাত্রীবাহী ট্রেনের গতির ট্রায়াল। এ সময় ট্রেনে কয়েকজন স্থানীয় ও প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা যাত্রী হিসেবে ছিলেন।
ভাঙ্গা রেলস্টেশন সূত্রে জানা গেছে, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ভাঙ্গা থেকে ২৮ কিলোমিটার দূরের মাওয়া রেলস্টেশনের উদ্দেশ্য ট্রায়াল ট্রেনটি রওনা হয়। সকাল ৮টা ১০ মিনিটের দিকে সেটি মাওয়া পৌঁছায়। এ সময় ট্রেনের গতি ছিল ঘণ্টায় ৬০ কিলোমিটার। এরপর মাওয়া থেকে ভাঙ্গার উদ্দেশ্যে ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার গতিতে সকাল ৮টা ২৫ মিনিটে রওনা হয়ে ট্রেনটি ৯টা ৪৫ মিনিটে ভাঙ্গায় আসে। একই ট্রেন আবার সকাল ১০টা ১০ মিনিটের দিকে ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার গতিতে ১০টা ৩৫ মিনিটের দিকে মাওয়া যায় এবং ১২০ কিলোমিটার গতিতে বেলা ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে ভাঙ্গা রেলস্টেশনে এসে পৌঁছায়।
ভাঙ্গা রেলস্টেশনের স্টেশনমাস্টার মো. শাহজাহান বলেন, আজ সকাল থেকে দুই দফায় পদ্মা সেতু পার হয়ে যাত্রীবাহী ট্রেনের গতি পরীক্ষা করা হয়েছে। শনিবার ঘণ্টায় ৬০ কিলোমিটার গতির ওয়াগন ট্রেনের (মালবাহী ট্রেন) গতি পরীক্ষা করা হবে।
প্রসঙ্গত, গত ৭ সেপ্টেম্বর ভাঙ্গা রেলওয়ে জংশন পরিদর্শন শেষে বাংলাদেশ রেলওয়ে ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, আগামী ১০ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা-ভাঙ্গা রেল চলাচলের উদ্বোধন করবেন। এরপর দ্রুততম সময়ের মধ্যে এই রেলপথ বাণিজ্যিকভাবে খুলে দেওয়া হবে।


প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২৩ | সময়: ৩:৫৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ