সামাজিক নানা অবক্ষয় দূর করতে ধর্মীয় চর্চার বিকল্প নেই: ডিসি শামীম আহমেদ

বাগমারা প্রতিনিধি:
রাজশাহীর বাগমারায় বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ও হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান-ঐক্য পরিষদ বাগমারা উপজেলা শাখার আয়োজনে ভগবান শ্রীকৃঞ্চের আবির্ভাব তিথি উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলা পরিষদ চত্বরের শিশু পার্কে উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি প্রদীপ কুমার সিংহের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালি বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য, সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

 

উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শীতেন্দ্রনাথ প্রামানিক ও যুগ্ম সম্পাদক নিত্যানন্দ সরকারের পরিচালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যে রাখেন রাজশাহীর জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ। প্রধান অতিথি বলেন, বর্তমান সময়ের অনেক সন্তান পিতা-মাতাকে মর্যাদা দিতে চায় না, বয়স্কদের সম্মান করতে চায় না। এটা খুবই উদ্বেগের বিষয়। এই সংকটজনক অবস্থা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। এর জন্য প্রয়োজন ধর্মীয় ও নৈতিকতা চর্চা ও সামাজিক জ্ঞান। আমরা যে যে ধর্মের অনুসারী হই না কেন আমাদের উচিত সেই ধর্মের জ্ঞান ও চর্চা ছেলে মেয়েদের মাঝে বিস্তার করা। তবেই আমরা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুনাগরিক হিসেবে করে গড়ে তুলতে পারবো।

 

 

 

তিনি হিন্দু সনাতন সম্প্রদায়ের নানা বয়সী নারী পুরুষের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আপনাদের শিশু সন্তানদের বেশি বেশি করে মন্দিরে নিয়ে যাবেন। ধর্মীয় চর্চা করাবেন। নৈতিকতা শেখাবেন। তবেই আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব। আজকে মাদক বলেন, সামাজিক শিষ্টাচার বলেন সব কিছুর মূলে রয়েছে এই ধর্মীয় শিক্ষা। সামাজিক নানা অবক্ষয় দূর করতে ধর্ম চর্চার কোন বিকল্প নেই।

 

 

ভগবান শ্রীকৃঞ্চের আবির্ভাব তিথি উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভার উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বাগমারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অনিল কুমার সরকার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ,এফ,এম আবু সুফিয়ান, সহকারি কমিশনার(ভুমি) সুমন চৌধুরী, বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম, ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক মণ্ডল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ আক্তার বেবি, ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল হক, আনোয়ার হোসেন, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কাঞ্চন রায় চৌধুরী, উপজেলা সহ-সভাপতি জয়ন্ত কুমার সরকার, উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান-ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি সত্যজিৎ রায় তোতা, পরিমল মণ্ডল, সাধারণ সম্পাদক অরুণ কুমার হালদার।

 

 

 

আলোচনা শেষে জেলা প্রশাসক র‌্যালিতে যোগদান করেন। র‌্যালীটি ভবানীগঞ্জ বাজার গোডাউন মোড় ও কলেজ মোড় প্রদক্ষিণ করে শিশু পার্ক চত্তরে এসে শেষ হয়। পরে সবার মাঝে প্রসাদ(দুপুরের খাবার) বিতরণ করা হয়।

সানশাইন/সোহরাব


প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৬, ২০২৩ | সময়: ৫:৫৭ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine